ব্রেকিং নিউজ:
রোমাঞ্চকর ম্যাচে হেরে গেছে বাংলাদেশের মেয়েরা
নিউজ ডেস্ক    সেপ্টেম্বর ০৭, ২০১২, শুক্রবার,     ১১:৫১:১৯

 

জয়ের খুব কাছে গিয়েও সাউথ আফ্রিকার সাথে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৪ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশের মেয়েরা। লতা মন্ডল ও ফারজানা হকের অর্ধশতকে ৭ উইকেটে ১৭৯ করা বাংলাদেশের রানকে ৩ বল বাকি থাকতেই টপকে যায় দক্ষিণ আফ্রিকার মহিলা ক্রিকেট দল,হাতে ছিল চার উইকেট। এই জয়ের ফলে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-১ এ সমতা আনলো সফরকারীরা।
মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুক্রবার টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে সালমার দল। ৪৩ রানেই তিন উইকেট হারায় বাংলাদেশ প্রমীলা ক্রিকেট দল। এরপর চতুর্থ উইকেটে ৭০ রানের জুটি গড়েন প্রথম ম্যাচের প্লেয়ার অফ দ্য ম্যাচ লতা মন্ডল ও ফারজানা পিংকি। ৮৩ বলের মোকাবেলায় ৫ চারে করা লতার ৫২ রান আর ৮৮ বলে ৬ চারে পিংকির ৫৫ রানের গুণে স্বাগতিকরা শুরুর ধাক্কা সামলে শেষ পর্যন্ত পৌঁছে যায় ওয়ানডেতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৭৯ রানের লড়াকু স্কোরে।
দলীয় ১১৩ রানে সুনীতি লুবসারের বলে স্টাম্পড হয়ে ব্যক্তিগত প্রথম অর্ধশতক পূরণের পর লতা সাজঘরে ফিরলে ভাঙ্গে বাংলাদেশ শিবিরে স্বস্তি ফেরানো এই জুটি।
এরপর পঞ্চম উইকেটে অধিনায়ক সালমা খাতুনের (১১) সঙ্গে ফারজানার ৪২ রানের জুটিতে দেড়শ পেরুয় স্বাগতিকরা। দলীয় ১৫৫ রানে ডেন ভ্যান নিকার্কের বলে স্টাম্পড হন সালমা।
এর পর ৪৬ ওভারের শেষ বলে দলীয় ১৬৫ রানে ওয়ানডেতে বাংলাদেশ প্রমীলা দলের হয়ে সর্বোচ্চ রানের ইনিংস খেলা ফারজানা (৫৫) দুর্ভাগ্যজনক রান আউট হলে আর বেশি দূর এগোয়নি স্বাগতিকদের ইনিংস। রুমানা আহমেদ শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন ১০ রানে। বাংলাদেশ ইনিংসের তৃতীয় সর্বোচ্চ ২৩ রান আসে অতিরিক্ত রানের কোটা থেকে আর ইনিংসের শুরুতে শারমিন আক্তারের শ্লথগতির ১৪ রানের অবদানও ছিল উল্লেখ করার মতন।
দক্ষিণ আফ্রিকার লুবসার ও ড্যান ভ্যান নিকার্ক যথাক্রমে ২৬ ও ৩০ রান খরচায় দুটি করে উইকেট নেন ।
১৮০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে জাহানারা আলমের বোলিং তোপের মুখে ৩৩ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে বেশ চাপে পড়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। তবে ডেইন ভ্যানের অপরাজিত ৪৫ আর অ্যালিসন হজকিন্সের ৩৩ বদলে দেয় ম্যাচের গতি।
পঞ্চম উইকেটে হজকিন্সের সঙ্গে ৬৪ রানের জুটি গড়েন মারিজান্নে কাপ। দলীয় ৯৭ রানে প্রতিপক্ষের অধিনায়ক হজকিন্সকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে জুটি ভাঙ্গেন সালমা খাতুন।
ষষ্ঠ উইকেটে ম্যাচ সেরা ডেন ভ্যান নিকার্কের সঙ্গে ৩৩ রানের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ জুটি গড়ার পর মারিজান্নে (৩৯) খাদিজাতুল কুবরার বলে বোল্ড হলে জয়ের আশা জেগে উঠে স্বাগতিক শিবিরে।
কিন্তু সপ্তম উইকেটে সাবনিম ইসমাইলকে (২৪) সাথী করে নিকার্কের গড়া অবিচ্ছিন্ন ৫০ রানের জুটিতে শেষ পর্যন্ত জয়েয় লক্ষ্যে পৌঁছে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা।
অবশ্য শেষ দু’ ওভারে বাংলাদেশের ফিল্ডাররা সহজ তিনটি ক্যাচ হাত ছাড়া না করলে হয়তো জয়বঞ্চিত হতে হতো না বাংলার মেয়েদের।
৩৫ রানে ৩ উইকেট নিয়ে জাহানারা আলম বাংলাদেশের সেরা বোলার। এছাড়া সালমা ২ উইকেট নেন ২৫ রানে।
৬৪ বলে ৩ চার আর ১ ছক্কায় ম্যাচ জেতানো ৪৫ রানের ইনিংসের জন্য প্লেয়ার অফ দ্য ম্যাচ হন ডেন ভ্যান নিকার্ক।
সিরিজ নির্ধারনী তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে হবে একই মাঠে রোববার।

এম.এস./ ১৬.৫৫
বিভাগ: খেলাযোগ   দেখা হয়েছে ২৬৭৮ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :