ব্রেকিং নিউজ:
দেশের প্রথম দুগ্ধজাত পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানটি অচল
নিউজ ডেস্ক    নভেম্বর ০৩, ২০১২, শনিবার,     ০২:৪৭:৩৩

 

বন্ধ হয়ে পড়ে আছে দেশের প্রথম এবং বৃহৎ দুগ্ধজাত পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান কুমিল্লা ইন্ডাস্ট্রিয়াল কো-অপারেটিভ সোসাইটি। প্রতিষ্ঠার পর থেকে লাভজনক হলেও ২০০৫ সালে অদক্ষতা এবং অব্যবস্থাপনায় লোকসানের কবলে পড়ে প্রতিষ্টানটি। এরপর থেকেই বন্ধ করা হয় দুগ্ধজাত পন্য উৎপাদনকারী এই প্রতিষ্ঠান। ফলে চরম দারিদ্রতায় পড়েছে সংশ্লিষ্ট শ্রমিকদের পরিবারগুলো।
চুয়াল্লিশ বছর আগে দেশের প্রথম দুগ্ধজাত পন্য উৎপাদন প্রতিষ্ঠান কুমিল্লা কো-অপারেটিভ সোসাইটির জম্ম। ২২টি সমবায়ী সংগঠন নিয়ে এটি গড়ে তুলেন সমবায় আন্দোলনের পথিকৃত ড. আখতার হামিদ খাঁন। ন্যায্যমুল্য ও ভালো মানের কারনে প্রতিষ্ঠানের সুনাম দ্রুত ছড়িয়েছিল আর ব্যবসায় সাফল্যও এসেছিল। এরপর অনিয়ম আর অব্যবস্থাপনায় ২০০০ সালের পর প্রতিষ্ঠানটি লোকসান গুনে গুনে ২০০৫ সালে বন্ধ হয়ে যায়।
বন্ধের আগে কুমিল্লা কো-অপারটেভি সোসাইটি কারখানার পাস্তুরিত দুধ, মাখন, পণির, ঘিসহ দুগ্ধজাত পন্যগুলো বাজারজাত হতো সারাদশেইে। এখন দেশের দুগ্ধজাত পন্যের চাহদিা আরো অনেক বেড়েছে। সেইসাথে প্রতিষ্ঠানটি চালুরও দাবী উঠছে। কিন্ত সম্পূর্ণ চুক্তিতে প্রতিষ্ঠানটির সম্পত্তি হস্তান্তর হওয়ায় একে চালু করতে ঋন পাওয়া যাচ্ছেনা। অথচ প্রতষ্ঠানটি চালু করতে প্রয়োজন মাত্র দেড় কোটি টাকা। তবে প্রতিষ্ঠানের তত্বাবধায়ক ও ভান্ডার রক্ষক শহীদ উল্লাহ বলেছেন, একে চালু করার উদ্দ্যগে নেয়া হচ্ছে।
প্রতিষ্ঠানটির মহাব্যবস্থাপক সৈয়দ আলীউর রহমান জানিয়েছেন, দীর্ঘ সাত বছর ধরে বন্ধ থাকার কারণে প্রতিষ্ঠানটির ক্রিম প্রসেসিং, এয়ার কমপ্রেসার, চাটার চামিং মেশিনসহ বিদেশ থেকে আনা মুল্যবান যন্ত্রপাতি নষ্ট হতে চলেছে।
সরকারি অনুদান অথবা কম সুদে ঋন পাওয়া গেলে দুগ্ধজাত পন্য উৎপাদনকারী এই প্রতষ্ঠানটি আবার সচল হবে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।
এস.এম.বি/০২.৪০
বিভাগ: অর্থযোগ   দেখা হয়েছে ৮৬৯ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :