ব্রেকিং নিউজ:
দেশজুড়ে ১৮ দলের ভাঙচুর,অগ্নিসংযোগ ও সংঘর্ষ
নিউজ ডেস্ক    ডিসেম্বর ০৯, ২০১২, রবিবার,     ১২:১২:১১

 

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে গাড়িতে আগুন, ভাঙচুর ও পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের মধ্য দিয়ে অবরোধ কর্মসূচি শুরু করেছে ১৮ দলীয় জোটের নেতা কর্মীরা। রোববার কর্মসূচির শুরু থেকেই রাজধানীর মোড়ে মোড়ে পুলিশ মোতায়েন থাকার পরও অবরোধকারীদের তৎপর দেখা গেছে।
অবরোধের শুরুতেই রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় পুলিশের সাথে ১৮ দলীয় কর্মীদের ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া ও আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। রাজধানীর পান্থপথে পুলিশের গাড়িতে আগুন দেয় অবরোধকারীরা। মীরপুরে প্রাইম ইউনিভার্সিটির সামনে ও পোস্তাগোলা সেতু সংলগ্ন সড়কেও বাসে আগুন দিয়েছে তারা। ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে রামপুরায়। পান্থপথ মোড়ে শেরেবাংলানগর থানার কাভার্ড ভ্যানে আগুন দেয় ১৮ দলের কর্মীরা। সেখানে দুই পুলিশ আহত হয়। এদিকে ভোর পৌনে ছ’টার দিকে মাতুয়াইল সাদ্দাম মার্কেটের সামনে টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধের চেষ্টা চালায় ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা। এসময় পুলিশ এসে উপস্হিত হলে তারা পালিয়ে যায়।
রাজপথ অবরোধ কর্মসূচি শুরু হয়ে সকালেই ঘণ্টা দেড়েকের মধ্যেই অন্তত একডজন গাড়ি ভাঙচুর করে অবরোধকারীরা। দু’একটি গাড়িতে আগুনও দেয় তারা। সকাল আটটার মধ্যে অন্তত ৫টি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। রোববার সকাল থেকেই রাজধানীর টিকুটুলিতে পুলিশের সাথে ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীদের দফায় দফায় সঙ্ঘর্ষ চলছে। সকাল আটটায় টিকুটুলি স্হানীয় ছাত্রদল কর্মীরা একটি মিছিল বের করে। এ মিছিল থেকে গাড়ি ও পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছোড়ে।
পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ এসময় তিনটি রাবার বুলেট ছুড়লে মিছিলটি ছত্র ভঙ্গ হয়ে যায়। সকাল সোয়া নয়টায় অবরোধ বিরোধী একটি মিছিল বের করে ছাত্রলীগ। এ মিছিলে স্থানীয় আঠারো দল কর্মীদের একটি দল পাঁচ থেকে ছয়টি ককটেল ছুড়ে। এসময় ছাত্রলীগ কর্মীরা তাদের ধাওয়া করে। এসময় তারা ১৮ দলের দুজন কর্মীকে ধরে ফেলে। তাদেরকে ছাত্রলীগ কর্মীরা মারধর করে। পরে পুলিশ দুজনকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে।
সকাল থেকে গাজীপুর চৌরাস্তায় সড়ক অবরোধ করে বেশকিছু গাড়ী ভাংচুর করেছে ১৮ দলীয় জোটের নেতা কর্মীরা। এছাড়া ঢাকা-ময়মনসিংহ এবং ঢাকা নরসিংদী বাইবাস সড়কেও অবরোধ করা হয়েছে। সাভারের নয়ারহাটে পিকেটারদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় ২০ জন আহত হয়েছে। পিকেটারা আগুন ধরিয়ে দিয়েছে একটি গাড়িতে। সেখানে ভাংচুর করে কয়েকটি গাড়ি। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেইরী গেটে অবরোধ করেছে ছাত্রদলের নেতা কর্মীরা। রাজপথ অবরোধের সময় রাজশাহী মহানগরীর বিনোদপুর এলাকায় পুলিশের সাথে বিএনপি নেতাকর্মীদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।
এদিকে রংপুরে সকাল থেকেই পিকেটারদেররা গাড়ি ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও গাছের গুড়ি ফেলে মহাসড়ক অবরোধ করে। সকাল ৮ টার দিকে রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়কের হাজিরহাটে জামাত শিবিরের নেতা কর্মীরা একটি মাইক্রোবাস ও ট্রাকে আগুন দেয়। এ সময় পিকেটাররা রাস্তায় গাছের গুড়ি ফেলে, টায়ার জ্বালিয়ে রাস্তায় অবরোধ গড়ে তোলে। এর আগে সাড়ে সকাল ৭ টায় পাগলাপীরে সড়ক অবরোধ করে ভাংচুর করে পিকেটাররা।
এছাড়াও বরিশালে ঢাকা-বরিশাল গড়িয়ার পাড় এলাকায় মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে গাছের গুড়ি ফেলে যান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে অবরোধকারীরা। শহরের কাশীপুর এলাকায় পিকআপভ্যান ভাংচুর করে অবরোধকারীরা। এসময় রাস্তা দুই ধারে শতাধিক গাড়ি আটকে যায়। শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সেতুর কাছে অবরোধকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট পাটকেল ছোড়ে। এসময় পুলিশ ৯ রাউন্ড গুলি ও ২ রাউন্ড টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে। এছাড়াও দেশের বিভিন্ন জায়গায় জ্বালাও পোড়াও ও সংঘর্ষ-ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া এবং সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।
এস.এম.বি/১১.০০
বিভাগ: প্রধান সংবাদ    দেখা হয়েছে ৭৭১ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :