ব্রেকিং নিউজ:
LIVE TV
সামাজিক নিরাপত্তায় ৫০ কোটি ডলার ঋণ দেবে বিশ্বব্যাংক
    জুন ২৮, ২০১৩, শুক্রবার,     ০৭:১৬:৫৫

 

বাংলাদেশে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি জোরদার করতে বিশ্বব্যাংক ৫০ কোটি ডলারের ঋণ অনুমোদন করেছে। বাংলাদেশী মুদ্রামানে এর পরিমাণ প্রায় চার হাজার কোটি টাকা।
বৃহস্পতিবার ওয়াশিংটনে বিশ্বব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভায় ঋণ প্রস্তাবটি অনুমোদন দেওয়া হয়।
অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, অতিদরিদ্রদের জন্য সামাজিক নিরাপত্তা জাল (এসএনএসপি) নামের প্রকল্পে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ২৬৭ কোটি ২০ লাখ ডলার। এর মধ্যে বিশ্বব্যাংক স্বল্প সুদে (০.৭৫ শতাংশ) ও নমনীয় পরিশোধের শর্তে দেবে ৫০ কোটি ডলার। বাকি অর্থ সরকার দেবে।
আগামী অর্থবছর থেকে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন শুরু হবে, যা শেষ হবে ২০১৭ সালে।
বিশ্বব্যাংকের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের আওতায় কাজের বিনিময়ে খাদ্য (কাবিখা), টিআর, জিআর, ভিজিএফ এবং অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচিতে এ প্রকল্প থেকে সহায়তা দেওয়া হবে।
এ ছাড়া সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি অধিকতর লক্ষ্যভিত্তিক করতে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর তত্ত্বাবধানে দরিদ্র পরিবারের ডাটাবেজ তৈরির কাজে সহায়তা করবে প্রকল্পটি।
এ প্রকল্পের মাধ্যমে সারাদেশের ৪০ লাখ পরিবারের এক কোটি ৮০ লাখ মানুষ উপকৃত হবে। আর্থিক সহায়তার পাশাপাশি সামাজিক নিরাপত্তার বিভিন্ন কর্মসূচির স্বচ্ছতা ও কার্যকারিতা বাড়ানো বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নের উদ্দেশ্য।
বাংলাদেশে নিযুক্ত বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর ইউহানেস জাট বলেন, বাংলাদেশে গত ১০ বছরে দারিদ্র্য বিমোচনে যে অগ্রগতি অর্জন করেছে, তা অব্যাহত রাখতে সামাজিক নিরাপত্তার অধিকতর কার্যকর ব্যবহার সহায়ক ভূমিকা রাখবে। বড়ো পাঁচটি সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির কার্যকর ও স্বচ্ছ বাস্তবায়ন শুধু এর আওতা বাড়াবে না, এটি সরকারি ব্যয়ের গুণগত মানোন্নয়নেও সহায়ক হবে।
দারিদ্র্য পরিস্থিতির ওপর বিশ্বব্যাংকের সাম্প্রতিক মূল্যায়নে বলা হয়েছে, সামাজিক নিরাপত্তা বাজেটকে সুনির্দিষ্ট লক্ষ্যভিত্তিক করতে পারলে দারিদ্র্যের হার আরও ৩ থেকে ৪ শতাংশ কমানো সম্ভব।

এম. এস./ ১৩:২৫
বিভাগ: সংবাদ সংযোগ   দেখা হয়েছে ৫৫১ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :