ব্রেকিং নিউজ:
LIVE TV
শেষ হলো জামায়াতের হরতাল
    জুলাই ১৮, ২০১৩, বৃহস্পতিবার,     ০২:০৮:১৩

 

বড় ধরনের কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই শেষ হয়েছে যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের বিচারের বিরোধিতায় জামায়াতে ইসলামীর টানা চতুর্থদিনের হরতাল। এর আগে হিন্দু সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসব রথযাত্রার কারণে বৃহস্পতিবারের হরতাল দুই ঘণ্টা কমিয়ে সন্ধ্যা ছয়টার পরিবর্তে বিকেল চারটা পর্যন্ত হরতাল করার সিদ্ধান্ত নেয় দলটি।
সকাল থেকেই রাজধানীর সড়কগুলোতে গত তিন দিনের তুলনায় বেশি যানবাহন চলতে দেখা গেছে। গণপরিবহনের পাশাপাশি রাস্তায় নেমেছে প্রচুর ব্যক্তিগত গাড়িও।
হরতালে রেল ও লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক থাকলেও গাবতলী, মহাখালী ও সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল থেকে সকালে দূর পাল্লার বাস ছেড়ে যায়নি।
দলের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের ফাঁসির রায়ের প্রতিবাদে সারা দেশে সকাল-সন্ধ্যা এই হরতাল ডাকে জামায়াত। যদিও হরতাল সফল করার জন্য রাজপথে দেখা যায়নি জামায়াত বা এর অঙ্গ-সংগঠন ছাত্র শিবিরের কোনো নেতা-কর্মীকে।
এদিকে ঢাকার বাইরে দু-একটি স্থানে পুলিশের সাথে জামায়াত-শিবিরের কর্মীদের বিচ্ছিন্ন সংঘর্ষ,ধাওয়া-পাল্টা-ধাওয়া, গাড়িতে আগুন ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে ।
রাজশাহীতে খুব ভোরে পঞ্চবটী এলাকায় রাস্তায় ইট ফেলে সড়ক অবরোধের চেষ্টা করে হরতাল সমর্থকরা। পরে সেখান থেকে চার শিবিরকর্মীকে আটক করে পুলিশ। এছাড়া খড়খড়ি ও হরিয়ান এলাকায় দুটি ট্রাক ভাংচুর করে জামায়াত-শিবিরের কর্মীরা। এ সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি ট্রাক খাদে পড়ে আহত হন একজন।
এছাড়া হরতালের সমর্থনে সকালে নারায়ণগঞ্জের কাশিপুর হাটখোলা এলাকায় একটি ট্যাংকলরিতে আগুন দেয় শিবিরকর্মীরা। এসময় কয়েকটি গাড়িও ভাংচুর করে তারা।
বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় বুদ্ধিজীবী নিধন ও হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষদের হত্যা-ধর্ষণের ঘটনায় সম্পৃক্ত থাকার সাতটি অভিযোগের মধ্যে পাঁচটি অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মাদ মুজাহিদকে মৃত্যুদণ্ড দেয় আদালত। মুজাহিদের রায়ের দিন বুধবার হরতাল করার পর মৃত্যুদণ্ডের আদেশ প্রত্যাখ্যান করে বৃহস্পতিবারও একই কর্মসূচি দেয় জামায়াত।

এম. এস./১৬:২০
বিভাগ: দেশযোগ   দেখা হয়েছে ৭৭১ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :