‘জুলাইতেই টিভি সাংবাদিকদের ওয়েজ বোর্ড’

জুলাইতেই সম্প্রচার সাংবাদিকদের ওয়েজ বোর্ড ঘোষণা করতে যাচ্ছে সরকার। সেইসাথে, বিদেশী চ্যানেলে বিজ্ঞাপন প্রচার করা হলে, জুলাই থেকে ক্যাবল অপারেটরদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাও নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন, তথ্যমন্ত্রী। একাত্তরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর বিশেষ আয়োজনে যুক্ত হয়ে এসব কথা জানান, তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।
রেডিও ও টেলিভিশনের হাত ধরে স্বাধীনতার পর থেকেই দেশে শুরু হয় সম্প্রচার সাংবাদিকতা। কিন্তু গত প্রায় পাঁচ দশকেও সম্প্রচার সাংবাদিকদের জন্য কোন বেতন কাঠামো নির্ধারিত হয়নি।
পত্রিকার সাংবাদিকরা যখন শিগগীরই নবম ওয়েজ বোর্ড পেতে যাচ্ছেন, তখন সম্প্রচার সাংবাদিকদের জন্য আলাদা ওয়েজ বোর্ডের দাবি উঠেছে। তথ্যমন্ত্রী জানালেন সম্প্রচার সাংবাদিকদের জন্য খুব দ্রুতই ঘোষিত হচ্ছে ওয়েজবোর্ড। এ ছাড়া সাংবাদিকদের পেশাগত নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সংসদের পরের অধিবেশনেই উত্থাপিত হচ্ছে গণমাধ্যমকর্মী আইন।
সরকারী দুটি চ্যানেল ছাড়া দেশে এখন এখন বেসরকারি টিভি চ্যানেল আছে ৪৪টি। আছে জনপ্রিয়তার তীব্র লড়াই। জনপ্রিয়তার নির্দেশক টেলিভিশন রেটিং পয়েন্ট বা টিআরপি নিরুপণের নীতিমালা প্রনয়ণের কথাও জানান তথ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি বিদেশী চ্যানেলে বিজ্ঞাপন প্রচার করলে পয়লা জুলাই থেকেই শাস্তিমূলক ব্যাবস্থা নেয়ার কথাও জানান তিনি।
এছাড়া চ্যানেলগুলোর ক্যাবল ডিস্ট্রিবিউশনকে ডিজিটালাইজড করার কাজ তরান্বিত করা হচ্ছে বলে জানান মন্ত্রী।
পাশাপাশি মোবাইল অপারেটরা বেআইনি ভাবে ডিজিটাল কন্টেন্টের ব্যবসা করছে কিনা তা নিয়েও বিটিআরসির সাথে আলোচনার আশ্বাসও দেনমন্ত্রী।
প্রতিবেদক: ফালুগনী রশীদ

Leave a comment