দক্ষিণ সুদানে প্রশংসিত বাংলাদেশের শান্তিরক্ষী বাহিনী

যুদ্ধবিধ্বস্ত দক্ষিণ সুদানের পুনর্গঠনে কাজ করে যাওয়া বাংলাদেশের শান্তি রক্ষী বাহিনীর ভূয়সী প্রশংসা করেছেন দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেনারেল কোল ম্যানিয়ান জুক। আর, সুদান সফররত বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের প্রধান রিয়ার অ্যাডমিরাল খালেদ ইকবাল জানিয়েছেন, দক্ষিণ সুদানকে নানা প্রশিক্ষণ সুবিধা দিতে আগ্রহী বাংলাদেশ। সুদান থেকে আলাদা হয়েও যুদ্ধ আর হানাহানিতে বিধ্বস্ত পৃথিবীর কনিষ্ঠতম দেশ দক্ষিণ সুদান। সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা প্রায় নেই। একমাত্র সহায় নীলনদ। তাই বিদ্ধস্ত এই দেশের যোগাযোগ, বাণিজ্য ও নিরাপত্তায় সাহায্য করছে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে থাকা বাংলাদেশ নৌবাহিনীর মেরিন ইউনিট। যাদের সফল কার্যক্রমের সুফল ভোগ করছে দক্ষিণ সুদানের সাধারণ মানুষ। মঙ্গলবার দক্ষিণ সুদান পিপলস ডিফেন্স ফোর্সেস সদর দপ্তরে আসা প্রতিনিধি দলের কাছে বাংলাদেশের বাহিনীর ভূয়সী প্রশংসা করেন বাহিনী প্রধাণ।
বাংলাদেশ থেকে আসা প্রতিনিধি দলের প্রধাণ জানান, দক্ষিণ সুদান চাইলে গভীর সমুদ্রে নিরাপত্তা, বাণিজ্য ও নৌ নিরাপত্তা কেন্দ্রিক বিভিন্ন প্রশিক্ষণে সহায়তা করতে পারে বাংলাদেশ। দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানান,দক্ষিণ সুদানকে আবারো শান্তি আর সম্মৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিতে বাংলাদেশের বাহিনীর এমন অবদানে তারা কৃতজ্ঞ। পরে বাংলাদেশের নয় সদস্যের প্রতিনিধি দলটি ইউ হাউজে দক্ষিণ সুদানে কর্মরত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং ব্রিগেডের কর্মকর্তাদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন ।

Leave a comment