একাদশ শ্রেণির বই কই?

এবার ক্লাশ শুরুর প্রথম দিনে একাদশ শ্রেণির ছেলেমেয়েরা নতুন বই হাতে পাবে কী না তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে বই ছাপা এবং সরবরাহকারীদের মধ্যে। তারা বলছেন, একটিমাত্র প্রতিষ্ঠানকে কাজ দেওয়ায় কারণে এবার বই দিতে দেরি হবে। যদিও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড বলছে, জুলাইয়ের প্রথম দিনের আগেই বইয়ের কাজ শেষ হবে।

বাংলা সহপাঠ, বাংলা সাহিত্য আর ইংরেজি সহিত্য পাঠ এই তিন বই একাদশ শ্রেণির সব বিভাগের শিক্ষার্থীদের জন্য বাধ্যতামূলক। তাই বইয়ের মান ধরে রাখতে গেলো কয়েক বছর ধরেই এই বই ছাপিয়ে তা নির্ধারিত মূল্যে শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দিচ্ছে এনসিটিবি।
কিন্তু বাংলাদেশ মুদ্রণ শিল্প সমিতির সাধারণ সম্পাদক জানান, এবছর দাপ্তরিক জটিলতায় ছাপার কাজ শুরু হয় জুন মাসের শুরুতে। যে কারণে আগামী পহেলা জুলাইয়ের আগে ৩০ লাখ বই ছাপা এবং সরবরাহ নিয়ে এত সংশয়। তিনি আরো জানান, শুধু একটি প্রতিষ্ঠানকে কাজ দেয়ার পরিস্থিতি আরো জটিল হয়েছে। তবে কাজ পাওয়া প্রতিষ্ঠান অগ্রণী প্রিন্টার্সের সত্বাধীকারী জানান কাজ দেয়ায় কোন অনিয়ম হয়নি।
এনসিটিবি বলছে বই ছাপার সংকট কেটে গেছে। পহেলা জুলাই একাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরুর দিনেই বাজারে বই পাওয়া যাবে।
২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষ থেকে একাদশ শ্রেণির বাংলা ইংরেজি বই ছাপা ও বাজারজাত করার সিদ্ধান্ত নেয় পাঠ্যপুস্তক বোর্ড।

Leave a comment