“মৌমাছিহীন পৃথিবীর আয়ু হবে মাত্র ৪ বছর”

পৃথিবীতে মৌমাছি না থাকলে, মানব সভ্যতার আয়ু হবে মাত্র চার বছর। জগৎখ্যাত বিজ্ঞানী আলবার্ট আইনস্টাইনের এই সতর্কবার্তা আবারো মনে করিয়ে দিলেন এক দল গবেষক। তাদের দাবি এরই মধ্যে, পৃথিবী থেকে বিলুপ্ত হয়ে গেছে পরাগায়নে সহায়তা করা এক তৃতীয়াংশ মৌমাছি। বিলুপ্তির পথে আরো অনেক প্রজাতির পরাগায়ন ঘটানো, উপকারী কীট-পতঙ্গ।

কীটনাশকের এই ব্যবহারে নেই কোনো বাছ বিচার। ফসল রক্ষার জন্য বিষাক্ত এই রাসায়নিকে মরছে পতঙ্গ, কমছে পরাগায়ন, বিপর্যয় ঘটছে পরিবেশের।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, ক্ষতিকর কীট-পতঙ্গ ধ্বংস করে ফসল রক্ষার নামে শস্যভাণ্ডারই ধ্বংস করছে মানুষ। কীটনাশকে থাকা রাসায়নিক নিওনিক্সের কারণে মরছে মৌমাছি, প্রজাপতিসহ পরাগায়ন ঘটানো পোকারা।

বিশ্বের প্রায় একশো ধরণের ফল আর ৯০ শতাংশ খাদ্যশস্যেরই পরাগায়ন ঘটায় মৌমাছি। অথচ এক দশকে হারিয়ে গেছে পৃথিবীর এক তৃতীয়াংশ ভ্রমর। শুধু ইউরোপেই বিলুপ্তির পথে আছে ২৪ শতাংশ মৌমাছি।

ডেভ গৌলসন, ইউনিভার্সিটি অব সাসেক্স
“৭৫ শতাংশ ফসলের পরাগায়ণই করে এই পতঙ্গরা। আর ৮৭ শতাংশ খাদ্যশস্যের দরকার পরাগায়ণের। এরা বিলুপ্ত হলে, শেষ হয়ে যাবে বেশিরভাগ গাছ আর ফুল। সমাপ্তি ঘটবে পৃথিবীর জীবন চক্রের।”

শুধু পতঙ্গ নয় কীটনাশকের ব্যবহারে বহু মানুষেরও গেছে প্রাণ। বিকলাঙ্গ হয়েছেন অনেকে। তাই মানুষ আর তার পৃথিবীকে রক্ষায় কীটনাশকের ব্যবহার বন্ধে দেশে দেশে হয়েছে বিক্ষোভ।

প্রতিবেদক : নাজমুল রানা

ওয়েব সম্পাদনা : সালমা সাবিহা খুশি