এবারই প্রথম ঢাকাতে হজ ইমিগ্রেশন

বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে ২০১৯ সালের হজ ফ্লাইট। হজে পাঠানোর এজেন্সিগুলোর সংগঠন, হাব এর মহাপরিচালক জানান,এবারই প্রথম সৌদি আরবের বদলে ঢাকাতেই হবে হজযাত্রীদের প্রি-অ্যারাইভাল ইমিগ্রেশন।তাই জেদ্দা পৌঁছে বিমানবন্দরে এক মুহূর্তও অপেক্ষা করতে হবে না যাত্রীদের।

 

তাছাড়া যাত্রীদের সব মালামাল হজের পুরো একমাস নিজের দায়িত্বে বহন করবে সৌদি কর্তৃপক্ষ । এই নতুন হজ প্যাকেজের নাম দেয়া হয়েছে রোড টু মক্কা।

মোট এক লাখ সাতাশ হাজার হাজির মধ্যে এবার ৬০ হাজার হাজিই ঢাকার হজরত শাহজালাল বিমান বন্দর থেকেই শেষ করবেন সৌদি আরবে প্রবেশের ইমিগ্রেশন । এজন্য সৌদি ইমিগ্রেশনের একটি দল ইতিমধ্যেই বিমান বন্দরে তাদের অফিস স্থাপন করেছে । যেখানে হাজির দশ আঙ্গুলের ছাপ নিয়ে করা হবে ইমিগ্রেশন ।

 

এজন্য যাত্রার তিন দিন আগেই হজ ক্যাম্পে হাজির হয়েছেন হাজিরা। ইমিগ্রেশন শেষ করতে ফ্লাইটের সাত থেকে আট ঘন্টা আগে আর বিমান বন্দর পৌছাতে হবে হাজিদের।

হাজিদের সুবিধার জন্য এই নতুন নিয়ম করা হলেও অনেক হাজিই তাদের মালামাল হারানোর শঙ্কায় রয়েছেন।

এবার ৮০ টি এজেন্সির মাধ্যমে এবার হাজিরা সৌদি যাচ্ছেন । বাংলাদেশ বিমান ছাড়াও হজযাত্রী পরিবহন করছে সৌদি এয়ার লাইন্স । ভিসা সংক্রান্ত জটিলতা কম থাকায় এবার বাংলাদেশ বিমানের প্রায় সব টিকিটই বিক্রি শেষ হয়েছে।