রিমান্ডে দুই নম্বর আসামি রিফাত ফরাজী

বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলার অন্যতম অভিযুক্ত রিফাত ফরাজীকে গ্রেপ্তারের পর সাতদিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। তাকে নিয়ে এজাহারভুক্ত ১২ আসামির মধ্যে পাঁচজন গ্রেপ্তার হলো। এদিকে প্রকাশ্যে রিফাতকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায়, শহরের আতংক স্বাভাবিক করতে কাজ শুরু করেছে পুলিশ। বুধবার শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের সঙ্গে কথা বলেছেন বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি।

রিফাত শরিফ হত্যায় অভিযুক্তদের মধ্যে নয়ন বন্ডের পরেই নাম ছিল রিফাত ফরাজীর। পুলিশের বক্তব্য অনুযায়ী মঙ্গলবার রাতে তাকে আটক করা হয়। অবশ্য কোথা থেকে আটক করা হয় সে ব্যাপারে কথা বলতে চাননি পুলিশ কর্মকর্তারা।
সকালে বরগুনা পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে হাজির করা হয় রিফাতকে। এসময় সেখানে কথা বলেন, বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি শফিকুল ইসলাম। সাংবাদিকদের তিনি জানান, অভিযুক্ত অন্যদেরও দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে।
এদিকে রিফাত হত্যার পর থেকে আতঙ্ক দেখা দেয়, শহরের বেশিরভাগ শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের মধ্যে।
সচেতনতা সৃষ্টির প্রসঙ্গে বরগুনার পুলিশ সুপার জানান, প্রশাসনকে সময় মত তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করলে এমন দুর্ঘটনা বন্ধ হবে।
গত ২৬শে জুন সকালে সরকারি কলেজ গেটে রিফাতকে কুপিয়ে হত্যা করে নয়ন বন্ড ও সহযোগীরা।

প্রতিবেদক: ইমরান হোসেন এবং মনিরা কাজরী

ওয়েব সম্পাদনা: ধ্রুব হাসান