বিকল্প ও পুনর্বাসন ছাড়াই রিকশা বন্ধ

যানজট কমাতে রাজধানীর প্রধান সড়ক থেকে পর্যায়ক্রমে রিকশা তুলে দেয়া হবে। ৭ জুলাই থেকে কুড়িল-রামপুরা-সায়েদাবাদ ও গাবতলী-আসাদগেট-আজিমপুর, সায়েন্সল্যাব-শাহবাগ সড়কে রিকশা চলতে দেয়া হবে না। বুধবার সিটি করপোরেশনের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। তবে বিকল্প ব্যবস্থা না করে রিকশা তুলে দেয়ার বিপক্ষে যাত্রীরা।

যানজটের জন্য দায়ী করা হলেও, এই নগরীর বেশ কিছু মূল সড়কে চলাচল করে রিকশা। গণপরিবহন সংকটের এই শহরে ব্যক্তিগত গাড়ি যাদের নেই, অল্প দূরত্বের যাত্রায় তিন চাকার এই বাহনই তাদের ভরসা।

যানজট কমাতে এরইমধ্যে গুরুত্বপূর্ণ বেশকিছু সড়ক থেকে রিকশা তুলে দেয়া হয়েছে। সেই তালিকায় এবার যুক্ত হচ্ছে আরো দুটি সড়কের নাম। ৭ই জুলাই থেকে কুড়িল-রামপুরা-সায়েদাবাদ, গাবতলী-আসাদগেট-আজিমপুর ও সায়েন্সল্যাব-শাহবাগ সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে। বুধবার ঢাকা দক্ষিণের নগর ভবনে যানজট নিরসন সংক্রান্ত কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়।দক্ষিণের মেয়র জানিয়েছেন, দু’মাসের মধ্যে পর্যায়ক্রমে রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ সব সড়ক থেকেই রিকশা তুলে দেয়া হবে।

এমন সিদ্ধান্ত নগর জীবনে দুর্ভোগ ডেকে আনবে না তো? মেয়র বলছেন, রিকশার বিকল্প হিসেবে সড়কদুটিতে পর্যাপ্ত বেসরকারি ও বিআরটিসি বাস থাকবে।

যদিও, মেয়রের কথায় আস্থা রাখতে পারছে না যাত্রীরা। তাদের চাওয়া বিকল্প ব্যবস্থা করে রিকশা বন্ধ করা হোক।

রিকশা তুলে দেয়ার পাশাপাশি ৭ই জুলাই থেকে উল্লেখিত সড়ক দুটির ফুটপাত দখলমুক্ত করতেও অভিযান চালানো হবে। এই প্রক্রিয়ায় সমন্বিতভাবে কাজ করবে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন ও রাজউক।

প্রতিবেদক: মনির মিল্লাত

ওয়েব সম্পাদনা: ধ্রুব হাসান