বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড গ্রহণযোগ্য করে তুলছি কি?

কথিত বন্দুকযুদ্ধে বরগুনার রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি ‘নয়ন বন্ড’ নিহত হওয়ার ঘটনায় পুলিশকে সতর্ক করেছে হাইকোর্ট। বিচারবহির্ভূত হত্যা পছন্দ করে না উল্লেখ করে আদালত বলেছে, নয়ন একদিনে তৈরি হয়নি। তাকে কেউ না কেউ লালন-পালন করে সন্ত্রাসী বানিয়েছে। রিফাত হত্যা মামলায় বরগুনা প্রশাসনের প্রতিবেদন হাতে পেয়ে এসব মন্তব্য করেন আদালত।

বরগুনায় রিফাত শরীফকে প্রকাশ্যে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যায় জড়িতরা যাতে পালিয়ে যেতে না পারে সেজন্য সীমান্তে রেড অ্যালার্ট জারির নির্দেশ দিয়েছিলে হাইকোর্ট। নির্দেশনা ছিল, মামলার অগ্রগতি প্রতিবেদন জমা দেয়ারও। বৃহস্পতিবার সেই প্রতিবেদনই আদালতে জমা দিলো বরগুনা প্রশাসন। যাতে বলা হয়েছে, মামলার ১২ আসামির মধ্যে ৫ জনকে গ্রেফতার হয়েছে। মূল আসামি নয়ন বন্ড বন্দুক যুদ্ধে মারা গেছেন। আর তখনই বিচারবহির্ভূত হত্যা নিয়ে অস্বস্তির কথা জানায় আদালত।

নয়ন ও তার সহযোগীরা যে প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় বেড়ে উঠেছে সে বিষয়েও উদ্বেগ জানিয়েছে আদালত। বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ অপরাধীদের ধরার ক্ষেত্রে আইন মানার পরামর্শও দিয়েছেন।

ওয়েব সম্পাদনা: ধ্রুব হাসান