‘বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড’ আওয়ামী লীগও সমর্থন করে না: ওবায়দুল কাদের

প্রতি দিনই দেশের কোথাও না কোথাও আইন শৃংঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাথে ক্রসফায়ারে মারা যাচ্ছে অভিযুক্ত অপরাধী। আইন শালিস কেন্দ্রের হিসেবে ২০১৮ সালে আইন শৃংঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে মারা গেছে ৪৬৬ জন। চলতি বছর এ পর্যন্ত মারা গেছে ২০৪ জন। যাকে বিচার বর্হিভূত হত্যাকান্ড বলছে মানবাধিকার সংস্থাগুলো।

সবশেষ বরগুনায় রিফাত হত্যার আসামি নয়ন বন্ড পুলিশের সাথে ক্রসফায়ারে মারা গেছে। আদালতে এই সংক্রান্ত প্রতিবেদন দিয়েছে বরগুনা প্রশাসন। এরপরই আদালত বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ড সমর্থন করে না বলে মন্তব্য করেছে হাইকোর্ট। এই প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বললেন, তার দলও বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ড সমর্থন করে না। তিনি বলেন, বরগুনায় রিফাত শরীফ হত্যা মামলার আসামি নয়ন বন্ড ক্রসফায়ারে মারা গেছে। সেখানে বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেনি। শুক্রবার সকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর কার্যালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রীর চীন সফরের অর্জন নিয়ে বিএনপি নেতাদের সমালোচনার জবাবে তিনি বলেন, দেশের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে বলেই উন্নয়ন দেখছে না বিএনপি। তিনি বলেন, সমঝোতা নয় বরং মেডিক্যাল বোর্ডের সিদ্ধান্তেই খালেদা জিয়া হাসপাতালে অবস্থান করছেন।

গ্যাসের দাম বাড়ানোর বিষয়টি পুর্নবিবেচনার সুযোগ নেই উল্লেখ করে এটিকে যৌক্তিক দাবি করেন কাদের।

প্রতিবেদক: অহিদুল ইসলাম

ওয়েব সম্পাদনা: ধ্রুব হাসান