ধানের দাম কমছে ক্রমাগত

দিনাজপুর, কুষ্টিয়া ও রংপুর জেলায় আবারো বস্তা প্রতি একশ টাকা কমেছে ধানের দাম। কৃষকরা বলছেন, হাটে বস্তা এনেও ধান বিক্রি করতে পারছেন না তারা। সরকারের সঠিক পরিকল্পনার অভাবেই এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে, বলছেন কৃষক নেতারা।

দিনাজপুর সদর উপজেলার নশিপুর ধানের হাট। বস্তা বস্তা ধান নিয়ে এসেছেন কৃষকরা, অথচ ক্রেতা নেই। যারাও আছেন দাম হাঁকছেন খুবই কম। দুদিন হলো এই বাজারে আবারও বস্তা প্রতি একশ টাকা কমেছে ধানের দাম। হতাশ হয়ে ধান নিয়ে ফিরে যাচ্ছেন বেশিরভাগ কৃষক। তবে যারা বিক্রি করছেন, তারাও মন প্রতি দুই থেকে তিনশ টাকা লোকসানে থাকছেন।

হয় দাম বাড়বে অথবা সরকার কিনবে এই আশায় উৎপাদিত ধান সংরক্ষণ করেছিলেন রংপুর ও এর আশেপাশের এলাকার কৃষকরাও। কিন্তু সেখানেও একই অবস্থা। শেষ পর্যন্ত অনেক কৃষকের সিদ্ধান্ত, আসছে বছরে ধানের বদলে চাষ করবেন অন্য ফসল।

এদিকে শুরুর দিকেই ধান বিক্রি করে দিয়েছেন কুষ্টিয়ার বেশিরভাগ কৃষক। লাভের আশায় যারাও সংরক্ষণ করেছিলেন, এখন বেশি লোকসানের আশঙ্কায় তারা।

মিল মালিকদের দাবি, চালের আমদানী বেশি হওয়ায় সৃষ্টি হয়েছে এই পরিস্থিতি।

৩১ শে আগস্ট পর্যন্ত সারাদেশ থেকে সরকারিভাবে ধান সংগ্রহ অভিযান চললেও এর আওতায় আনা যায়নি প্রান্তিক পর্যায়ের বেশিরভাগ কৃষককে।

প্রতিবেদক: শাহরিমা বৃতি

ওয়েব সম্পাদনা: ধ্রুব হাসান