রিফাত হত্যাকান্ডের নতুন ভিডিও

বরগুনার রিফাত হত্যায় ১৫ থেকে ২০ জন জড়িত ছিল, আর তাদের কিলিং মিশন শেষ হয় মাত্র দুই মিনিটেই। এ ঘটনার নতুন সিসিটিভি ফুটেজ থেকে এই তথ্য জানা গেছে। ভিডিওতে দেখা যায় রিফাতকে হত্যার জন্য সকাল থেকেই কলেজের সামনে পরিকল্পনা করছিল খুনিরা। এই হত্যা মামলায় এ পর্যন্ত গ্রেপ্তার ১০ জনের মধ্যে ছয়জন হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে।

সিসিটির ফুটেজে দেখা যায় বুধবার সকাল ১০টায় বরগুনা সরকারি কলেজে স্ত্রীকে নিতে আসেন রিফাত শরীফ। রাস্তার বিপরীতে সাদা বাইকটি রেখে কলেজের ভেতরে যান তিনি।

এরপর ১০ টা ৩ মিনেটে নয়ন বন্ড বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড রিফাত ফরাজিকে দেখা যায় ৬ থেকে ৭ জনকে নিয়ে কলেজ গেইটের সামনে কারো জন্য অপেক্ষা করতে। কিছুক্ষণ পর বাহিনীর ২ থেকে ৩জনকে কলেজে পাঠায় সে। এরপর ১০টা ৯ মিনিটে অন্য আরো কয়েকজনকে নিয়ে কলেজের উল্টো পাশে অবস্থান নেয়। এক মিনিট পর গেইটের কাছে এসে আরো দুটি ছেলেকে নির্দেশনা দিয়ে উল্টো দিকে পাঠায়।

১০ টা ১২ মিনিটে কলেজ থেকে বেড়িয়ে রিফাত শরীফ গাড়িতে উঠতে চাইলে, রিফাতের স্ত্রী মিন্নি গাড়িতে না উঠে কলেজের দিকে ছুটে য়ায়। এ সময় রিফাত স্ত্রীকে বাধা দেয়ার চেষ্ট করে।
ঠিক ১০টা ১৩ মিনিটে রিফাত ফরাজি রিফাত শরিফকে গেটে এসে বন্ড বাহীনির সহায়তায় জোর করে নয়ন বন্ডের কাছে নিয়ে যায়।

এসময় সবাই রিফাতকে মারধর শুরু করে। আর রিফাত ফরাজি ও অন্যজন একজন দৌড়ে গিয়ে তিনটি দা নিয়ে আসে।
রিফাত তার দুই হাতের দুটি দায়ের একটি নয়নকে দেয় ও আরেকটি দিয়ে নিজেই কোপাতে শুরু করে রিফাত শরীফকে। ১০ টা ১৫ মিনিটে কোপানো শেষ করে নয়ন। এরপর রিফাতসহ বন্ড বাহীনি কলেজ গেটের সামনে থেকে চলে যায়।

পুরো ঘটনা ঘটে যাওয়ার ঠিক আট মিনিট পরে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। এরপর শুরু হয় তদন্ত।