যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসম্যানের প্রস্তাব উস্কানিমূলক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের বিষয়ে যা করণীয় তা করবে বলে আশ্বাস দিয়েছে চীন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “এটা ঠিক যে চীন বরাবরই মিয়ানামরের সঙ্গে আছে। কিন্তু বাংলাদেশ আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গারা যে একটা সমস্যা, এটা তারা উপলব্ধি করতে পারছেন। তারা সবসময় মনে করছেন যে বিষয়টির দ্রুত সমাধান হওয়া উচিত। এ জন্য তাদের যা করণীয় তারা তা করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন”।

সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশকে বাংলাদেশের ভূখণ্ডে যুক্ত করার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের এক কংগ্রেসম্যানের প্রস্তাবকে প্রত্যাখ্যান করেছেন।

আজারবাইজানের বাকুতে ইউনেসকোর বিশ্ব ঐতিহ্য কমিটির সভা চলছে। আগামী ১০ জুলাই পর্যন্ত এ সভা চলবে। সুন্দরবনকে বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকা থেকে বাদ দিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় নেওয়া হতে পারে- এমন একটা কথা হচ্ছিলো। কিন্তু সে আলোচনায় শুরুতেই প্রতিবাদ জানিয়েছে চীন। পটুয়াখালির পায়রা এবং বরগুনার তালতলীতে চীনের অর্থায়নে দুটি কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মিত হচ্ছে। রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আন্তর্জাতিক ফোরামে জোরালো ভূমিকা না রাখলেও নিজের বিনিয়োগ সুরক্ষিত রাখতে চীন এখানে ঠিকই জোরালো ভূমিকা রেখেছে। চীনের আপত্তিতে ইউনেসকোর প্রস্তাব বাতিল হয়ে গেছে।