বিশ্বকাপে ব্যর্থতার দায়ে স্টিভ রোডসের বিদায়

সমোঝোতার ভিত্তিতে টাইগারদের হেড কোচ স্টিভ রোডসকে ছেড়ে দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবি। বিশ্বকাপে ব্যর্থতার দায়ে তাকে আর রাখা হচ্ছেনা দলের সঙ্গে। তাই নতুন কোন কোচের অধিনেই চলতি মাসের শেষে শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে টাইগাররা। এছাড়াও কোচিং স্টাফে আরও বেশ কিছু পরিবর্তনের কথা খেলাযোগকে নিশ্চিত করেছে বিসিবির একাধিক সুত্র।

বিশ্বকাপের ঠিক এক বছর আগে টাইগারদের তুলে দেয়া হয় তার হাতে। অভিজ্ঞতা আর সাম্প্রতিক ফর্মে বাংলাদেশ দল যখন যাচ্ছে স্বপ্নের বিশ্বকাপে, তখন ইংলিশ কন্ডিশনের সিক্রেট জানতে কিংবা মানিয়ে নিতেই বিলেতি কোচ স্টিভ রোডসকে আনা হয় বাংলার ঘরে। কিন্তু সাফল্য আর ধরা দিলো কই? ব্যর্থতার দায়ে শ্রীলঙ্কা সিরিজের আগেই তাকে সরিয়ে দেয়া হলো।
বিসিবির প্রধান নির্বাহী ব্যাপারটি এড়িয়ে গেলেও বোর্ডের আরো ৩টি সুত্র বিষয়টি খেলাযোগকে নিশ্চিত করেছে।

ট্রাইনেশন সিরিজ শেষ হবার পর কন্ডিশনিং ক্যাম্প করতে ওখান থেকেই দলকে পাঠিয়ে দেয়া হয় ইংল্যান্ডে। কিন্তু বিশ্বকাপের আগে ওখানে ক্রিকেটারদের অনুশীলনটাকে ঐচ্ছিক করে দিয়ে বিসিবির চোখের কাটা হোন তিনি। ভারত ম্যাচের আগে ক্রিকেটারদের ৫ দিনের ছুটি দেয়ার বিষয়টাও মানতে পারেনি বোর্ড। একই সাথে ক্রিকেটারদের কড়া শাসনে রাখতে না পারার অভিযোগতো আছেই।

পরবর্তী বিশ্বকাপ ভারতে। চেনা কন্ডিশনে নতুন করেই পরিকল্পনা সাজেতে চাইছে বোর্ড। তাই শুধু রোডস নয়, বড়সহ পরিবর্তন আসছে কোচিং স্টাফে। ফিল্ডিং, স্পিন কোচের বিদায়ও নাকি নিশ্চিত। শোনা যাচ্ছে স্পিন বোলিং পরামর্শক হিসেবে ভারতের অনিল কুম্বলেকে আনার চেস্টা করছে বিসিবি। পেস বোলিং কোচ ক্যারিবিয়ান লেজেন্ড কোর্টিনি ওয়ালশের চুত্তিও আর নবায়ন হচ্ছেনা।

এমনটা হলে আসছে শ্রীলঙ্কা সফরে গুরুর দায়িত্ব নেবে কে। বাতাসে গুঞ্জন লঙ্কতেই নাকি কথা চলছে কড়া মাস্টার, সাবেক গুরু হাথুরুসিংহেকে ফিরিয়ে আনার । না হলে খালেদ মাহমুদ সুজনকেই দেয়া হতে পারে আপদকালিন দ্বায়িত্ব।

প্রতিবেদক -এহতেসাম সবুজ