এই মৌসুমে ইলিশের আমদানি আরো বাড়বে

রূপালি ইলিশে ভরে উঠেছে চাঁদপুরের মাছ-বাজার। জেলে ও আড়ৎদাররা বলছেন, জেলার ২৫টি মাছ-ঘাটে প্রতিদিন দুই থেকে তিনশো মন ইলিশ আমদানি হচ্ছে। এদিকে আগস্ট-সেপ্টেম্বরের ভরা মৌসুমে ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ ধরা পড়বে বলে আশা করছে মৎস্য বিভাগ।

মাছ ধরায় সরকারি নিষেধাজ্ঞা থাকায় ২ মাস বেকার সময় পার করতে হয়েছে জেলেদের। অনেকটা অলস সময় পার করতে হয়েছে আড়ৎদারদেরও। তবে এখন মাছের আড়ৎ ও ঘাটে ইলিশ আসতে শুরু করায় হাক ডাকে মুখর চাঁদপুরের মাছঘাটগুলো। বর্তমানে চাঁদপুরে ২৫টি ছোট বড় মাছঘাটে দুই থেকে তিনশ মণ ইলিশ আমদানী হচ্ছে। কদিন বাদে ইলিশের আমদানি আরো বাড়বে বলে আশা করছেন আড়ৎদাররা।

জেলেরা জানান, এক কেজি আকারের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ১২ থেকে ১৩’শ টাকা কেজি দরে। আর ছোট ছোট ইলিশ আকার ভেদে বিক্রি হচ্ছ ৫’শ থেকে ৮’শ টাকার মধ্যে।

মৎস্য কর্মকর্তারা বলছেন, সরকারি বিভিন্ন কর্মসূচি সফলভাবে শেষ হয়েছে।গেল বছরের তুলানায় এ বছর ইলিশের উৎপাদন আরো বাড়বে।চাঁদপুর সদর, হাইমচর, মতলব উত্তর ও দক্ষিণ উপজেলায় মোট ৫১ হাজার ১’শ ৮৯জন জেলে রয়েছে।

ওয়েব সম্পাদনা : সালমা সাবিহা খুশি