অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকা মানেই বাঁচার লড়াই

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকা মানেই বাঁচার লড়াই। ভূমি দিবসকে উপলক্ষ করে প্রতি সপ্তাহেই নিজ ভূখণ্ড ফেরত চেয়ে চলছে বিক্ষোভ আর প্রতিবাদ। দেড় বছর আগে শুরু হওয়া এই আন্দোলনে এপর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন তিনশরও বেশি ফিলিস্তিনি। আহত হয়েছেন ১৭ হাজারেরও বেশি। ইসরাইলের সশস্ত্র সেনাদের সামনে তবু প্রতিদিনই দাঁড়াচ্ছেন সাহসী মানুষ।

দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া এই তরুণদের চাওয়া একখণ্ড ভূখণ্ড। গুলি আর কাঁদানে গ্যাসের বিপরীতে সম্বল ইট-পাটকেল আর মনোবল।

ইতিহাসের থমথমে এক অধ্যায় গ্রেট মার্চ অব রিটার্ন। গাজার ইসরাইলি সীমান্তে প্রতি শুক্রবার ফিলিস্তিনিদের বুক চিতিয়ে দাঁড়ানোর এই দিন মানেই বোমা, বারুদ আর আর্তনাদ।

প্রচণ্ড তাপদাহ আর ইসরাইলি সেনাদের কাঁদানে গ্যাস; সব মিলে দুর্বিষহ এই ময়দান। সব উপেক্ষা করে কিশোর তরুণ কিংবা বৃদ্ধ, স্লোগানে স্লোগানে দাবি ফেরত চাই নিজের জমি।

ইসরাইলি সেনাদের চোখে ধোঁয়া দিতে প্রতিরোধ টায়ারের আগুন। বুলেটের জবাবে গুলতির মতো ঘুড়িয়ে ঘুড়িয়ে ছুটছে পাথর।

জীবন বাজি রেখে প্রায় ১৮ মাস ধরে নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষায় লড়ছেন ফিলিস্তিনিরা।

প্রতিবেদন: হৈমন্তী শুক্লা

ওয়েব সম্পাদনা: শম্পা বিশ্বাস