রোগমুক্তির গুজব ছড়ানো নলকূপটি সিলগালা

ঝিনাইদহে রোগমুক্তির গুজব ছড়ানো নলকূপটি সিলগালা করে দেয়া হলেও কমেনি মানুষের ঢল। পানি না পেয়ে এখন কাদা-মাটি গায়ে মেখেই রোগ মুক্তির প্রার্থনা করছেন তারা। এদিকে চিকিৎসকেরা বলছেন রোগমুক্তি তো দূরের কথা, কাদা-মাটি গায়ে মাখা এবং খাওয়ার কারণে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হতে পারেন তারা।

প্রথমবার পানি খেয়ে কমেছে রোগের তীব্রতা। তাই আবারও এসেছেন। কেউ আবার প্রথমবারের মতো এসেছেন দূর দূরান্ত থেকে। কিন্তু দুর্ভাগ্য, নলকূপটিই আর নেই। বন্ধ করা হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে।

হতাশ হয়ে তাই নলকূপের গোড়ার কাদা মাটিই গায়ে মাখছেন, কেউ আবার সঙ্গে নিয়ে যাচ্ছেন খাওয়ার জন্য। নলকূপ বন্ধ করার প্রতিবাদও জানাচ্ছেন অনেকে।

সম্প্রতি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার মধুহাটি ইউনিয়নের এই বাগানে নলকূপটি বসানো হয়েছিলো ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে। যার পানি খেয়ে অসুখ সেরেছে বলে দাবি করেন এলাকার একজন। এরপর থেকেই লাইন লাগে মানুষের।

পানি খেয়ে জটিল রোগ ভালো হওয়ার দাবি করেন অনেকের। অনেকে আবার ফল না পেয়ে এটিকে কুসংস্কার বলে মেনেও নিয়েছেন।

সহজ সরল এসব মানুষকে কুসংস্কার মুক্ত করতে সচেতনতা প্রয়োজন বলে মনে করছেন সিভিল সার্জন।

এদিকে ঘটনা স্থলের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ।

নলকূপের পানি খেয়ে রোগমুক্তির গুজব ছড়িয়ে পড়লে গেলো মঙ্গলবার জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ অপসারণ করা হয় নতুন বসানো নলকুপটি।

প্রতিবেদক: শাহরিমা বৃতি

ওয়েব সম্পাদনা: শম্পা বিশ্বাস