কয়েক সেকেন্ডে কোটি টাকার সেতু উধাও

জামালপুরের বকশীগঞ্জে মাত্র ২০ সেকেন্ডেই কোটি টাকায় নির্মিত একটি সেতু বন্যার পানিতে বিলীন হয়ে গেছে।
বুধবার বিকেলে উপজেলার মেরুরচর গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সামিউল হক নেদা জানান, বন্যার পানি আসার সঙ্গে সঙ্গে মাত্র ২০ সেকেন্ডের মধ্যে পুরো সেতু ভেঙে পড়ে। সেতুটি ভেঙে যাওয়ায় উপজেলার জব্বারগঞ্জ বাজারের সঙ্গে মেরুরচর ইউপির যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

এদিকে স্থানীয় দশানী ও ব্রহ্মপুত্র নদের পানি দ্রুত বেড়ে বন্যায় নতুন করে বকশীগঞ্জ পৌর এলাকায় পানি ঢুকতে শুরু করেছে। এরই মধ্যে মেরুরচর, সাধুরপাড়া, নিলক্ষিয়া ও বগারচর ইউপিতে ৭০ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে।

দেওয়ানগঞ্জ ও বকশীগঞ্জের সড়কে পানি ওঠায় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। পাশাপাশি বকশীগঞ্জ উপজেলার কলেজ, মাধ্যমিক, মাদরাসা ও প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো বন্ধ হয়ে গেছে। এলাকায় পানি ঢোকায় প্রায় শতকোটি টাকার মাছ ভেসে গেছে। নষ্ট হয়েছে অসংখ্য বীজতলা।

বন্যায় সরকারিভাবে ১০টন চাল ও ২০ হাজার টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে, যা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকতা হাসান মাহাবুব খান জানান, ত্রাণের জন্য আরো চাহিদা দেয়ার প্রেক্ষিতে ২৫ টন চাল ও ৪০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় এসব ত্রাণ বিতরণ করা হবে।

ওয়েব সম্পাদনা : জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়