মানচিত্র থেকে হারিয়ে যাচ্ছে চৌহালী!

যমুনা নদীর দফায় দফায় ভাঙ্গনে দিশেহারা সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলার মানুষ। অব্যাহত ভাঙনে বিলিন হয়েছে অন্তত ৫টি গ্রাম। শুধুমাত্র সঠিক পরিকল্পনার অভাবেই চৌহালীর অস্তিত্ব বিলিন হতে চলছে বলে দাবি এলাকাবাসীর। জনপ্রতিনিধিরা বলছেন, কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা হয়েছে। খুব শিগগিরই ভাঙনরোধে কাজ শুরু হবে।

চলতি বছর বর্ষার পানি বৃদ্ধির কারণে যমুনা নদীর তীর ঘেষে তীব্র ঘূর্ণাবর্তের সৃষ্টি হয়ে তীরবর্তী এলাকায় শুরু হয়েছে ভয়াবহ ভাঙ্গন। যমুনার পূর্বপাড় খাসকাউলিয়া থেকে চরজাজুরিয়া পর্যন্ত প্রায় ৯ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে শুরু হয় এ ভাঙ্গন। এলাকাবাসীর অভিযোগ, পানি উন্নয়ন বোর্ডে সঠিক সময়ে উদ্যোগ গ্রহণ না করার জন্যই উপজেলাটির জনপদ মানচিত্র থেকে হারিয়ে যেতে বসেছে।

বাঁধ রক্ষা আর নদী ভাঙ্গন রোধ করার জন্য প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে। তারা দ্রুত ব্যবস্থা নেবে বলে জানালেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

নদী ভাঙ্গন রোধে স্থায়ী সমাধানের জন্য কয়েক ধাপে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড । দ্রুত বাস্তবায়ন হলে চৌহালী বাসীকে রক্ষা করা সম্ভব হবে বলে জানালেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ।

২০২ বর্গমাইল আয়তনের দুর্গম এই উপজেলাটি এখন প্রায় ১৬০ বর্গমাইল যমুনা নদীতে বিলিন হওয়ায় চৌহালী উপজেলাটি সিরাজগঞ্জের মানচিত্র থেকে হারিয়ে যেতে বসেছে।

প্রতিবেদক: মাসুদ পারভেজ
ওয়েব সম্পাদনা: ধ্রুব হাসান