‘জয় শ্রী রাম’ নিয়ে উত্তপ্ত ভারত

গণপিটুনি নিয়ে পাল্টাপাল্টি চিঠির লড়াইয়ে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ভারত। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে বিশিষ্ট ৪৯ জনের চিঠির জবাবে পাল্টা চিঠি দিয়েছেন বিভিন্ন অঙ্গনের ৬১ জন ব্যক্তি। বিজেপির জয় শ্রী রাম স্লোগানে ধর্মীয় সহিংসতা বন্ধের আহবানকে চ্যালেঞ্জ করেছে অপরপক্ষ। এই উত্তেজনার মধ্যেই গণপিটুনি ঠেকাতে সরকারকে নোটিশ দিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত।

ভারতজুড়ে আতঙ্ক এখন বিজেপির জয় শ্রীরাম স্লোগান আর গোরক্ষার নামে গণপিটুনি। পরিসংখ্যান বলছে ২০১৫ সাল থেকে উম্মত্ত জনতার হাতে বেধড়ক পিটুনিতে প্রাণ গেছে ৯৯ জনের।

গণপিটুনির ঘটনায় উদ্বেগ জানিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি দিয়েছেন, ৪৯ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি। তারা জানিয়েছেন যুদ্ধের স্লোগান হয়ে উঠেছে জয় শ্রীরাম। বন্ধ করতে হবে ধর্মের নামে হত্যা।

কিন্তু মোদীকে চিঠির জেরে বিশিষ্টজনদের আক্রমণ করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁর কথায়, বিশিষ্টরাই সবচেয়ে বড় দেশদ্রোহী। আর টেলিফোনে হত্যার হুমকি পান অভিনেতা কৌশিক সেন।

চিঠির একদিন পরই পাল্টা চিঠি দেন কঙ্গনা রনৌতেসহ বিভিন্ন অঙ্গনের ৬১ জন ব্যক্তি। তাদের প্রশ্ন, জয় শ্রীরাম স্লোগান দেয়ায় কাউকে জেলে পোরা হলে কেন নীরব থাকেন বিশিষ্ট জনেরা।

এদিকে বিশিষ্টজনদের চিঠির প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। বিতর্ক আর উত্তেজনার মধ্যেই, গণপিটুনি ঠেকাতে ২০১৮ সালে আদালতের দেয়া নির্দেশনা বাস্তবায়নে কেন্দ্রীয় সরকারসহ ১০টি রাজ্যে নোটিশ দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট।

প্রতিবেদক: নাজমুল রানা
ওয়েব সম্পাদনা: ধ্রুব হাসান