কেমন গেলো অধিনায়ক তামিমের প্রথম দিন?

বাংলাদেশের অধিনায়কত্বের প্রথম ইনিংসে কেউ সেঞ্চুরি পায়নি,তামিমও গড়তে পারেননি রেকর্ড। শুন্য রানেই আউট। কেমন গেলো তামিমের কাপ্তানির প্রথম দিন? নতুন করে অভিষেক হওয়া শফিউলের বোলিংয়ে কতটা ফায়দা হলো বাংলাদেশের?

বিশ্বকাপে কথা বলেনি তার ব্যাট…চারিদিকের বাঁকা কথায় বেড়েছে মনের ব্যথা।চাপের সময়েই হঠাত মিলেছে কাপ্তানির রোল…লাল সবুজ জার্সীতে প্রথম ওয়ানডেটায়,হেরে গেলেন টস।

পঞ্চাশ ওভারের ফরমেটে বাংলার চৌদ্দতম অধিনায়ক…ফিল্ডিং আর বোলিংটা কেমন সামলালেন নয়া কাপ্তান? শুরুতেই উঠে আসবে রিভিউ মিসের ঘটনা। ম্যাচের গোড়াতেই ভুল সিদ্ধান্তে খোয়া গেছে একমাত্র রিভিউটা।

নিজ বোলাররা ছন্নছাড়া,লংকান টপ আর মিডল ওর্ডারের বেমক্কা মারে ফিল্ড সেটআপ আর বোলার পরিবর্তনেও বেশ চাপেই ছিলেন তামিম ইকবাল।

লিডারশীপের প্রথম ইনিংসটাও নিশ্চিত করেই ভুলে যেতে চাইবেন,চার বলে শূন্য রানেই বাড়ি।

অভিষেকের একযুগ পর তামিমের কাপ্তানি শুরু,প্রেমাদাসায় শফিউলের নতুন করে ফেরা। প্রায় তিন বছর পর ওয়ানডেতে নেমেই চমক সিম বোলারের। ফ্ল্যাট পিচে প্রথম স্পেলে পাঁচ ওভারের কেবল একত্রিশ রান খর্চা।

ডেথ ওভারে ব্যর্থতা কাটাতেই আচমকা স্কোয়াডে শফিউল…সেই প্রমানও দিলেন,শেষের চার ওভারে ভ্যারিয়েশন, তুলে নিলেন দুখানা উইকেট।ওর মাপা বোলিংয়ে নিশ্চিত করেই ১৫ থেকে ২০ রানের সুবিধা মিলেছে টিম বাংলাদেশের।

প্রতিবেদক: সাইফুল রূপক
ওয়েব সম্পাদনা: ধ্রুব হাসান