রিফাত হত্যা মামলা ভিন্ন খাতে নিতে অপপ্রচার; অভিযোগ মিন্নির স্বজনদের

বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যায় সরাসরি জড়িত রিশান ফরাজীসহ এজাহারভুক্ত পাঁচ আসামী এখনো গ্রেপ্তার হয়নি। অথচ রিশান ফরাজীর আপন ভাই মামলার আরেক আসামী রিফাত ফরাজী

নয়নকে ‘নয়ন বন্ড’ বানিয়েছে কে?

কথিত বন্দুকযুদ্ধে বরগুনার রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি 'নয়ন বন্ড' নিহত হওয়ার ঘটনায় পুলিশকে সতর্ক করেছে হাইকোর্ট। বিচারবহির্ভূত হত্যা পছন্দ করে না উল্লেখ করে

রিফাত হত্যায় দলের কেউ জড়িত থাকলে ব্যবস্থা নেয়া হবে : ওবায়দুল কাদের

বরগুনায় রিফাত হত্যায়, দলের কেউ জড়িত থাকলে, ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, অপরাধীদের বিষয়ে নমনীয়

‘বন্দুকযুদ্ধে’ স্বস্তি!

কথিত বন্দুকযুদ্ধে বরগুনার রিফাতের অন্যতম খুনি 'নয়ন বন্ডে'র মৃত্যুর ঘটনায়, রাজধানীর অনেকেই স্বস্তি প্রকাশ করেছেন। তাদের মতে, ভয়ানক এসব ঘটনার বিচার এমনই হওয়া উচিত।

রিমান্ডে দুই নম্বর আসামি রিফাত ফরাজী

বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলার অন্যতম অভিযুক্ত রিফাত ফরাজীকে গ্রেপ্তারের পর সাতদিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। তাকে নিয়ে এজাহারভুক্ত ১২ আসামির মধ্যে পাঁচজন গ্রেপ্তার হলো। এদিকে

অপরাধীদের পেছনের অপরাধী কারা ?

সাধারণ মানুষ কি ভাবছে সেটার মধ্যে এই প্রসঙ্গ এসেছে যাকে মেরে ফেলে হলো, তাকে মেরে ফেলা না হলে এই শক্তির পেছনের শক্তিকে জানা যেতো।

নয়ন বন্ডকে নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যা বললেন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, রিফাত হত্যা মামলার সব আসামীকে ধরা হলেও প্রধান আসামি 'নয়ন বন্ড' নিজের অবস্থান বারবার পরিবর্তন করছিল। শেষপর্যন্ত নিজেকে রক্ষা করতেই অস্ত্র নিয়ে

রিফাতের খুনি নয়ন বন্ড ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলার প্রধান অভিযুক্ত নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মারা গেছে। এরই মধ্যে নয়নের মরদেহ ময়না তদন্তের জন্যে মর্গে নেয়া হয়েছে ।

তিনদিনেও গ্রেফতার হয়নি নয়ন বন্ড

তিনদিনেও গ্রেপ্তার হয়নি রিফাত হত্যার প্রধান অভিযুক্তরা। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে আন্দোলনে নেমেছেন বরগুনার সব স্তরের মানুষ। তারা বলছেন, হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার না করা হলে

জেমস বন্ড থেকে নয়ন বন্ড, কিলিং মিশনে “০০৭” গ্রুপ

সুপরিকল্পিত হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন রিফাত শরীফ। গোটা হত্যামিশন পরিচালনা করেছে জিরো জিরো সেভেন নামের একটি গ্রুপ। এই ফেসবুক গ্রুপে যোগাযোগের মাধ্যমে হত্যা মিশন চূড়ান্ত