ব্রেকিং নিউজ:
বিদ্যুৎ ছাড়াই চলে তৌহিদুল ইসলামের আলু সংরক্ষণাগার
নিউজ ডেস্ক    আগষ্ট ২৮, ২০১২, মঙ্গলবার,     ০৫:২১:২১

 

বিদ্যুৎ ছাড়াই আলু সংরক্ষণাগার তৈরী করে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন দিনাজপুরের তৌহিদুল ইসলাম বকুল। আর এতে সহায়তা দিয়েছে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ক্যাটালিস্ট ও জিমার্ক। প্রাকৃতিক এই সংরক্ষাণাগারটি জনপ্রিয় হলে হয়রানি অনেকটাই কমাবে বলে মনে করছেন আলুচাষীরা।
দিনাজপুরের বীরগঞ্জের প্রাকৃতিক সংরক্ষণাগারটি চলছে বিদ্যুৎ ছাড়াই। এর ধারণ ক্ষমতা ১০০ টন। উদ্যোক্তা তৌহিদুল ইসলাম বকুল জানিয়েছেন, বিদ্যুত ছাড়াই এখানে প্রায় ৬ মাস আলু সংরক্ষণ করা সম্ভব।
সাধারণত হিমাগারে আলু সংরক্ষণ করতে খরচ পড়ে কেজি প্রতি ৫ থেকে ৬ টাকা। কিন্তু এই প্রাকৃতিক সংরক্ষণাগারে আলু রাখতে খরচ কেজি প্রতি মাত্র ৮৬ পয়সা। আর আলু চাষীরা বলছে, এখানে আলু সংরক্ষণ করলে নষ্ট হওয়ার হার মাত্র দুই ভাগ।
এই প্রাকৃতিক সংরক্ষণাগারটি তৈরি করতে খরচ হয়েছে প্রায় ৭ লাখ টাকা। ইট সিমেন্ট দিয়ে দেয়াল বানিয়ে তাতে তাপ শোষনের জন্য দেয়ালে লেপে দেয়া হয়েছে মাটি। ঘরে ভেতর ঠান্ডা রাখতে দুটি ফ্যান দেয়া হয়েছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক আনোয়ারুল আলম জানান, তিনি প্রাকৃতিক ভাবে তৈরি এই সংরক্ষনাগারটি নিয়ে আশাবাদী কৃষি অধিদপ্তরের কর্মকর্তারাও। তিনি আরো জানান, এই পদ্ধতিতে শুধু আলুই নয় ফুলকপি,বাধাকপিসহ অন্যান্য সবজিও সংরক্ষণ করা সম্ভব।
এস.এস/এস.এম.বি/০৫.১৫


বিভাগ: দেশযোগ   দেখা হয়েছে ৬৯৫ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :