ব্রেকিং নিউজ:
‘জনগণের জন্য কাজ করবো’ -নির্বাচনী প্রচারণায় রিমি
নিউজ ডেস্ক    আগষ্ট ২৯, ২০১২, বুধবার,     ১২:৪২:৩৬

 

জনগণের সাথে থেকে কাজ করার অঙ্গিকারের মধ্য দিয়ে গাজীপুর-৪ আসনের উপ নির্বাচনের নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী সিমিন হোসেন রিমি। প্রথম দিনের নির্বাচনী প্রচারণায় তার সাথে ছিলেন কেন্দ্রীয় নেতা তোফায়েল আহমেদসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতারা।
বুধবার বিকেলে কাপাসিয়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত উপজেলা আওয়ামী লীগের কর্মী সভায় দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী অপর আট জন নেতা তাদের অবস্থান থেকে সরে দলীয় প্রার্থী সিমিন হোসেন পক্ষে তাদের সমর্থন প্রকাশ করেছেন।
সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের অন্যতম সদস্য ও কাপাসিয়ার উপ-নির্বাচনের প্রধান সমন্বয়কারী তোফায়েল আহমেদ এমপি। তোফায়েল আহমেদ বলেন, “বঙ্গতাদের শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদের ঋণ শোধ করতেই আমরা সিমিন হোসেন রিমিকে মনোনয়ন দিয়েছি। আশা করি কাপাসিয়াবাসী রিমিকে এমপি নির্বাচিত করবে।”
সিমিন হোসেন রিমি তাকে মনোনয়ন দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান এবং নির্বাচনে সবার দোয়া ও সমর্থন কামনা করেন। রিমি বলেন,“মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা তাজউদ্দীন ও তার এলাকার প্রতি সম্মান দেখিয়ে আমাকে মনোনয়ন দিয়েছেন। তাই এলাকার উন্নয়নে দায়িত্ব নিতেই এ উপ-নির্বাচনে এসেছি। নির্বাচিত হলে এলাকার মানুষের সঙ্গে কথা বলে তাদের সমস্যা নিয়ে কাজ করব।”
বিশেষ করে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবা খাতে সহায়তামূলক আরো বেশি ভূমিকা রাখতে পারবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।
সোহেল তাজের ছেড়ে দেয়া আসনে নির্বাচন প্রসঙ্গে রিমি সাংবাদিকদের বলেন, “সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও আমার ছোট ভাই তানজিম আহমেদ সোহেল তাজ পারিবারিক কোনো কারণে পদত্যাগ করেনি। সোহেল তাজের সঙ্গে আমাদের কোনো দ্বন্দ্বই নেই।”
সভায় বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম, গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ভূমি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট আ. ক. ম মোজাম্মেল হক এমপি, গাজীপুর জেলা পরিষদের প্রশাসক আক্তারুজ্জামান, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, মহিলা ও শিশু বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মেহের আফরোজ চুমকি এমপি, সংরক্ষিত মহিলা এমপি জাহানারা বেগম, কাপাসিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সভাপতি মো. মোতাহার হোসেন মোল্লা। সমাবেশে নির্বাচন বর্জনের জন্য বিএনপির সমালোচনা করা হয়।
এর আগে দুপুরে রিমি কাপাসিয়া উপজেলায় নিজের গ্রাম দরদরিয়াতে দাদা-দাদীর কবর জিয়ারতের মধ্য দিয়ে তিনি গনসংযোগ তার আনুষ্ঠানিক নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন। এ সময় তিনি বলেন, “আমি মনে করি রাজনীতি মানে সমাজ সেবা, যা আমি আগেও করেছি। নির্বাচন করার কোনো ইচ্ছা আমার ছিল না, কিন্তু জনগণের দাবির মুখে নির্বাচনে এসেছি।”
লালমাটি আর শালবনের সমৃদ্ধ জনপদে উন্নয়নের ছোঁয়া দেওয়ার লোকটির অভাব এখনো স্পষ্ট। ঢাকার কাছের এই নির্বাচনী আসনে ভোটার দুই লাখের মতো। যদিও সিমিন হোসেনের ভাই, মন্ত্রীত্ব ও সংসদ সদস্য পদ থেকে সোহেল তাজের বিদায় নিয়ে সংশয় আছে এলাকাবাসীর মনে, তবুও সব ভুলে এবার কাপাসিয়ার আওয়ামীলীগ সমর্থকেরা শেখ হাসিনার প্রার্থীর পাশে দাড়িয়েঁছেন নতুন আশা নিয়ে।

এফ. আর./এম. এস./২১.১৫
বিভাগ: প্রধান সংবাদ    দেখা হয়েছে ৫৯৩ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :