ব্রেকিং নিউজ:
যুক্তরাজ্য থেকে বহিস্কারের হুমকিতে ২হাজার শিক্ষার্থী
নিউজ ডেস্ক    আগষ্ট ৩১, ২০১২, শুক্রবার,     ০১:৩৮:০৫

 

যুক্তরাজ্যের ইউকে বর্ডার এজেন্সি, বাঙালি অধ্যুষিত পূর্ব লন্ডনের লন্ডন মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটিতে ইউরোপীয় নয় এমন বিদেশি শিক্ষার্থীর নিবন্ধন বাতিল করেছে। এতে বিপাকে পড়েছেন অন্তত ২ হাজার বিদেশি শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে বাংলাদেশি আছেন কমপক্ষে ৫শ ছাত্রছাত্রী।
নিয়ম অনুযায়ী এইসব ছাত্র-ছাত্রীরা ৬০ দিনের মধ্যে অন্য কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে না পারলে তাদেরকে যুক্তরাজ্য ছাড়তে হবে। সেপ্টেম্বরে সেশন শুরু হয়ে যাওয়ায় নতুন করে অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আশাও কম।
এ সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের বাসার সামনে মৌন বিক্ষোভ করেছে শিক্ষার্থীরা।
কর্তৃপক্ষের হঠাৎ করে এ ধরণের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ডাউনিং স্ট্রিটে প্রতিবাদ করেছেন লন্ডন মেট্রোপলিটন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ইউনিয়ন। তারা সেখানে মৌন প্রতিবাদও জানায়।
ডিন আদোমবনিনামে এক নাইজেরিয়ান ছাত্র জানান, “আমি নাইজেরিয়া থেকে ২০১১-এর সেপ্টেম্বরে এখানে এসেছি। কম্পিউটার সায়েন্স-এ মাস্টার্স করছি। এর জন্য জমা দিয়েছি ১৫ হাজারেরও বেশি পাউন্ড। কিন্তু কেবল এক সেমিস্টার গিয়েছে। আমাদের মতো দেশগুলোর ছাত্রদের অর্থনৈতিক সমস্যা থাকেই। আর আমি পারিবারিক সম্পত্তি বিক্রি করে এখানে পড়তে এসেছি। এখনি কিভাবে দেশে ফিরে যাই।
লন্ডন স্টুডেন্ট ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট আয়োলা অনিফাদে জানান, আমরা আজ একত্র হয়েছি যাতে একসাথে কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানাতে পারি। কেননা এই সিদ্ধান্তের মানে হচ্ছে অইউরোপীয় ছাত্রদের ৬০ দিনের মধ্যে কোন না কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে হবে। আর তা না হলে লন্ডনে তারা বেআইনি হয়ে যাবে।
স্টুডেন্ট ইউনিয়নের নেতারা জানিয়েছেনম, “প্রতিবাদ কর্মসূচীর মাধ্যমে সরকারকে শান্তিপূর্ণভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি যেন তারা সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করে। অন্যান্য ছাত্র সংগঠনগুলোর সাথে কথা বলার পর আমরা পরবর্তী কর্মসূচী জানাবো”।

এ.আর/১৩৩৭

বিভাগ: প্রধান সংবাদ    দেখা হয়েছে ৪০৬ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :