ব্রেকিং নিউজ:
ওভার ব্রিজ নির্মাণের আশ্বাসে শাহবাগে অবরোধ প্রত্যাহার
নিউজ ডেস্ক    সেপ্টেম্বর ০২, ২০১২, রবিবার,     ০৭:১৫:৩৮

 

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ শাহবাগে আন্ডারপাস বা ফুট ওভারব্রিজ নির্মাণের আশ্বাস দেবার পর অবরোধ তুলে নিয়েছেন বিক্ষুব্ধ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।
রোববার দুপুরে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের দাবিতে শাহবাগ মোড়ে ২ ঘণ্টা রাস্তা অবরোধ করে রাখে শিক্ষার্থীরা। এতে শাহবাগসহ আশেপাশের রাস্তায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। তবে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ কাজ শুরুর আশ্বাসের পর দুপুর পৌনে ২টার দিকে তারা অবরোধ তুলে নিলে ওই এলাকার যান চলাচল স্বাভাবিক হয়ে আসে।
গত ২৮ আগস্ট শাহবাগ মোড়ে বাসের ধাক্কায় প্রাণ হারান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তৌহিদুজ্জামান। ওই ঘটনায় একই দিন প্রায় শতাধিক গাড়ি ভাঙচুর করে ও আগুন লাগায় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।
এরই ধারাবাহিকতায় রোববার সকালে ঘাতক বাসচালকের ফাঁসি এবং শাহবাগ মোড়ে আন্ডারপাস বা ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণসহ মোট ৫ দফা দাবিতে শাহবাগ মোড়ে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।
শিক্ষার্থীদের পাঁচ দফা দাবিগুলো হলো: নিহত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র তৌহিদের পরিবারকে এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়া, রাজধানী এক্সপ্রেস বাস কর্তৃপক্ষ এবং চালকের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা, শাহবাগ-নিউমার্কেট মোড়ে পাতাল সড়ক এবং দোয়েলচত্বর ও পলাশীর মোড়সহ অন্যান্য মোড়ে ফুটওভারব্রিজ নির্মাণ, বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে স্টিকারবিহীন গাড়ি চলাচলের ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়ন ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে সব শিক্ষার্থীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দেয়া।
এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আমজাদ আলী শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেন এবং তাদেরকে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালনের আহ্বান জানান।
এরপর ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, আগামী ১৫ দিনের মধ্যেই শাহবাগ মোড়ে ফুটওভার ব্রিজের নির্মাণকাজ শুরু হবে এবং ৩ মাসের মধ্যেই তা শেষ করা হবে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরও জানান,বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতর দিয়ে বাইরের গাড়ি চলাচল নিয়ন্ত্রণে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এই সিদ্ধান্তে শিক্ষার্থীরা আপাতত সন্তুষ্ট হলেও নির্ধারিত সময়ের মধ্যে দাবি-দাওয়া পূরণ না হলে আবারো আন্দোলনে যাবেন বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন তারা। এরপর বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে ফিরে গেলে ওই এলাকায় যান চলাচল স্বভাবিক হয়ে আসে।

এম. এস./১৭.৫৫
বিভাগ: প্রধান সংবাদ    দেখা হয়েছে ৪১৬ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :