ব্রেকিং নিউজ:
টি-২০ সিরিজে ঘুরে দাঁড়ালো আফ্রিকার মেয়েরা
নিউজ ডেস্ক    সেপ্টেম্বর ১২, ২০১২, বুধবার,     ০৩:৫৩:০৩

 

মিরপুরে তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টি-টুয়েন্টি ম্যাচে সাউথ আফ্রিকা ছয় উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ মহিলা দলকে। প্রথমে ব্যাট করে সাউথ আফ্রিকাকে ১০৬ রানের টার্গেট দেয় বাংলাদেশ। জবাবে চার উইকেট হারিয়েই সিরিজে সমতা ফেরায় সফরকারীরা।
শুরুতেই টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথমে ব্যাটিং করে অধিনায়ক সালমা খাতুনের ৪২ রানের ওপর ভর করে বাংলাদেশ দল নির্ধারিত ২০ ওভারে ছয় উইকেটে ১০৫ রান তুলে।
দলীয় ১০ রানেই প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ব্যক্তিগত ৪ রান করে সুজান বেনাডের বলে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেন রুমানা আহমেদ। এরপর ফারজানা হকও ব্যক্তিগত ৫ রান করে আউট হন।
তৃতীয় উইকেট জুটিতে অধিনায়ক সালমা লতা মন্ডলকে নিয়ে ধাক্কাটা ভালভাবেই সামাল দেয়। এই জুটি গুরুত্বপূর্ণ ২৮ রান করে। সপ্তম ওভারের চতুর্থ বলে ১০ রান করে লতা বিদায় নেয়ার সময় বাংলাদেশের স্কোর ৫৬/৩।
তবে এরপর নিয়মিত উইকেট হারায় বাংলাদেশি মেয়েরা। দলীয় ৯৩ রানে বিদায় নেন অধিনায়ক সালমা। তবে দলের জন্য ৫টি চারের মাধ্যমে মুল্যবান ৪২টি রান স্কোর বোর্ডে যোগ করেন।
অতিরিক্ত থেকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৮ রান যোগ হয় দলের খাতায়।
জবাবে শেষ বল পর্যন্ত খেলে ৪ উইকেটে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। শুরুতেই জাহানারা আলমের মারাত্মক বোলিংয়ে ১৫ রানেই দুই উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু তৃতীয় উইকেট জুটিতে অ্যালিসন হজকিন্সের ৩৭ আর সুসানা বেনাডির ৭৩ রানের জুটিতেই ম্যাচের নিয়ন্ত্রন নিয়ে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকার মেয়েরা।
দলীয় ৮৮ রানে লতা মণ্ডলের দুর্দান্ত ক্যাচে অ্যালিসন ফিরে যায়। এর আগেও দুবার ক্যাচ দিয়েও বেঁচে যান অ্যালিসন-সুসানা। উইকেটরক্ষক নুজহাত তাসনিয়াও দুটি স্ট্যাম্পিংয়ের সুযোগ হাতছাড়া করেন।
১৯তম ওভারের দ্বিতীয় বলে রানের খাতা খুলার আগে অধিনায়ক মিগনন দু প্রিজকে ফিরিয়ে দিয়ে বড় একটা ধাক্কা দেন জাহানারা।
জয়ের জন্য শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ৯ রান। ওভারের প্রথম তিন বলে ব্যাটে বল ছোঁয়াতে না পারলেও বাজে ফিল্ডিংয়ের কারণে ২ রান পায় হয়। চতুর্থ বলে সুসানা চার মেরে দলের জয় নিশ্চিত করেন। ৪৮ বলে ৩টি চার ও দুটি ছক্কায়
ম্যাচ শেষে ৫৩ রানে অপরাজিত থাকেন চারবার জীবন পাওয়া সুসানা।
বাংলাদেশের পক্ষে ১৬ রানে ৩ উইকেট নেন জাহানারা।
এস.এম.বি/০১.৫০
বিভাগ: প্রধান সংবাদ    দেখা হয়েছে ৩৯৪ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :