ব্রেকিং নিউজ:
রামুর হামলায় জড়িতদের কঠোর শাস্তি দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী
নিউজ ডেস্ক    অক্টোবর ০৮, ২০১২, সোমবার,     ০১:৪২:৪১

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, রামুর হামলায় জড়িতদের কঠোর শাস্তি দেয়া হবে। ককক্সবাজারের রামুর খিজারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এক সভায় তিনি আরও বলেন, “এ ধরণের ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন না হয় সে জন্য প্রশাসন সজাগ রয়েছে। এ সময় তিনি এ ঘটনার সময় স্থানীয় বিএনপি'র সংসদ সদস্যের ভূমিকা রহস্যজনক ছিল বলেও মন্তব্য করেন”। সোমবার বেলা ১১টার দিকে হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত বৌদ্ধ মন্দির এবং বসতবাড়ি দেখতে কক্সবাজারের রামুতে পৌঁছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
সোমবার সকাল পৌনে ৯টায় কুর্মিটোলা বিমান ঘাঁটি থেকে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে রওনা হন শেখ হাসিনা। সোয়া ১০টায় কক্সবাজারে পৌঁছানোর পর রওনা হন রামুর পথে।বেলা ১১টার দিকে প্রধানমন্ত্রী পৌঁছান সীমা-বৌদ্ধ বিহারে। গত ২৯ সেপ্টেম্বর রাতে আরো ছয়টি বৌদ্ধ মন্দিরের সঙ্গে এই বিহারটিও পুড়িয়ে দেয় হামলাকারীরা। হামলা, ভাঙচুর ও আগুনে পোড়ানো হয় অন্তত ৩০টি বসত-বাড়ি ও দোকান।
এদিকে , রামুর ও উখিয়ার ঘটনায় গণগ্রেপ্তার বাদ দিয়ে আসল অপরাধীদের খুঁজে বের করার দাবি ক্ষতিগ্রস্তদের।
২৯শে সেপ্টেম্বরের সেই রাতে কক্সবাজারের রামুর বৌদ্ধ পল্লীতে কারা আগুন ধরিয়ে দেন, তার স্বাক্ষী শুধু স্থানীয়রা। তবে, এখনও পর্যন্ত সবক'টি তদন্ত দল বলছে, সে রাতের হামলা আগে পরিকল্পিত। সরকারের পক্ষ থেকে বারবারই বলা হচ্ছে, জড়িতদের ছাড় দেয়া হবেনা। তবু, প্রধানমন্ত্রী নিজে ঘরপোড়া মানুষগুলোর জন্য কি সুখবর নিয়ে আসবেন তা জানতে আগ্রহী এলাকার সবাই।
প্রধানমন্ত্রীর কাছে বৌদ্ধদের পক্ষ থেকে সীমা বিহারের ভিক্ষুর দাবি, গণ গ্রেফতার বন্ধ করা হোক।
এদিকে,প্রধানমন্ত্রীর আসা নিশ্চিত হওয়ার সাথেসাথেই আরো জোরদার হয়েছে আইন শৃংখলা ব্যবস্থা। পুলিশের পাশাপাশি রয়েছে বিজিবি,র‌্যাব ও সেনা বাহিনী।

পি.আর/এ.আর
বিভাগ: প্রধান সংবাদ    দেখা হয়েছে ৩৭১ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :