ব্রেকিং নিউজ:
চীন-বাংলাদেশ সহযোগিতা আরো বহুমুখী হবে : খালেদা জিয়া
নিউজ ডেস্ক    অক্টোবর ১৯, ২০১২, শুক্রবার,     ০১:১১:২৬

 

বাংলাদেশের অবকাঠামো, যোগাযোগ ব্যবস্থা, প্রতিরক্ষা এবং জ্বালানি খাতে চীনের সহযোগিতা ভবিষ্যতেও জোরদার হবে এবং বিনিময়ের ক্ষেত্র আরো বহুমুখী হবে এমন আশাবাদ জানিয়েছেন বিরোধীদলীয় জোটের নেতা এবং বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)-র চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।
শুক্রবার পেইচিংয়ে চীনা রেডিও ইন্টারন্যাশনালকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে খালেদা জিয়া বলেন, "অবকাঠামো,যোগাযোগ, প্রতিরক্ষা এবং জ্বালানি খাতে চীনের সহযোগিতা নিয়ে আমাদের জনগণ উপকৃত হয়েছে। আশা করি ভবিষ্যতে এই সহযোগিতা বিনিময়ের ক্ষেত্র আরো জোরদার ও বহুমুখী হবে।"
বেইজিংয়ের দিয়াও উতাই গেস্ট হাইসে সিআরআই-এর সংবাদদাতাকে দেওয়া স্বাক্ষাতকারে বেগম জিয়া গত এক দশকে অর্জিত চীনের উন্নয়নকে 'বিস্ময়কর' আখ্যায়িত করে বলেন, "চীনের সব উন্নয়নই গণমুখী। মানুষকে কেন্দ্র করেই সব উন্নয়ন এ-দেশে হয়ে থাকে। উন্নয়নের সুফলকে সুসম বন্টনের মাধ্যমে সকল স্তরে পৌঁছে দেয়ার এক মহান লক্ষ্যও স্থির করেছে এদেশের সরকার।"
চীনের কমিউনিস্ট পার্টির আসন্ন ১৮তম জাতীয় কংগ্রেস এর সাফল্য কামনা করে বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন,"চীনের গঠন ও উন্নয়ন কাজের নীতি, কর্মসূচী ও কৌশল এবং কিভাবে এর সুফল দ্রুত জনগণের কাছে পৌঁছানো যায় তা কমিউনিস্ট পার্টিই ঠিক করে। আশা করি পার্টির আসন্ন কংগ্রেসে আরো তরুণ ও গতিশীল নেতৃত্ব উঠে আসবে এবং চীনের জনগণকে আরো সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নেয়ার পথ তৈরি হবে।"
এসময় তিনি নতুন ও সমৃদ্ধশালী চীন গড়ে তোলার ক্ষেত্রে চীনা কমিউনিস্ট পার্টির সাফল্যের প্রশংসা করে এই ঐতিহ্যবাহী দলের সাথে তার দল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের মধ্যকার সহযোগিতা আরো জোরদার করাব ব্যাপারে আগ্রহ জানান।
চীনের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির বৈদেশিক যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের আমন্ত্রণে খালেদা জিয়া এবার চীন সফর করছেন।

এম. এস./১১.৩৫
বিভাগ: প্রধান সংবাদ    দেখা হয়েছে ৮০০ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :