ব্রেকিং নিউজ:
খালেদার চীন সফর সফল: খ. মোশাররফ
নিউজ ডেস্ক    অক্টোবর ২০, ২০১২, শনিবার,     ০৯:১৭:৪২

 

বিরোধী দলীয় নেতা ও বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার চীন সফর সফল হয়েছে বলে দাবি করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন।
তিনি বলেন, “আমরা যে উদ্দেশ্য চীন সফর করেছি তা সফল হয়েছে।”
শনিবার বিকাল সাড়ে তিনটায় বিএনপি চেয়ারপার্সনের গুলশান কার্যালয়ে বিএনপি প্রতিনিধি দলের চীন সফর বিষয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।
খন্দকার মোশাররফ বলেন, এবারের সফরে চীনের বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারি-বেসরকারি নেতাদের সঙ্গে বিরোধীদলীয় নেতার ফলপ্রসূ বৈঠক হয়েছে। দুই দেশের স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয় এবং আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।
চীনের কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা ও মত বিনিময়ের অভিজ্ঞতাকে এ সফরের সবচেয়ে বড় অর্জন বলে মনে করেন খন্দকার মোশাররফ। তিনি বলেন, সফরে চীনের কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃত্বের বৃন্দের সাথে বিশেষ করে চীনের ভাইস প্রেসিডেন্ট পিং ঝিং পিং ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে আমাদের লম্বা সময় কথা বলার সুযোগ হয়েছে।
বৈঠকের ফলাফল নিয়ে মোশারফ জানান, অনেক আলোচনাতেই আম রা ঐক্যমতে পৌঁছেছি ।এগুলো আমাদের দ্বিপাক্ষিক বন্ধুতার সম্পর্ককে নতুন মাত্রা দিবে।
খন্দকার মোশাররফ বলেন, খালেদা জিয়াকে চীনের ভাইস প্রেসিডেন্ট পিং ঝিং পিং জানিয়েছেন যে, “তারা দ্বিতীয় পদ্মা সেতুতে অর্থায়নের নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন।”
এ ছাড়া চীন সরকার বঙ্গপোসাগরে গভীর সমুদ্র বন্দর স্থাপন ও চট্টগ্রাম হতে কুনমিং পর্যন্ত রাস্তা বানাতে আগ্রহ দেখিয়েছে।
বাংলাদেশে চীনা বিনিয়োগ বাড়ানোর বিষয়ে খালেদা জিয়ার বিভিন্ন প্রস্তাবে চীনা নেতৃবৃন্দের স্বস্তিময় আশ্বাস মিলেছে। শিল্প, কৃষি ও প্রযুক্তি খাতে বিনিয়োগ বাড়াবে চীন আর সামরিক বাহিনীর আধুনিকায়নেও করে যাবে সহযোগিতা।
এদিকে, “নালিশ করতে চীন গেছেন খালেদা জিয়া” -আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ-এর এমন অভিযোগ সম্পর্কে খন্দকার মোশাররফ বলেন, এটা ওদের অপপ্রচার। চীনা কমিউনিস্ট পার্টির আমন্ত্রণেই বিএনপির এই সফর।
খন্দকার মোশাররফ বলেন,দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট কোনো বিষয় নিয়ে কোনো বিদেশি দেশের সাথে বিএনপি অতীতেও কোনো আলোচনা করেনি বা কোনো অভিযোগ জানায় নি।এবারও চীনা কমিউনিস্ট পার্টির আমন্ত্রণে বিএনপি চেয়ারপারসনের সাম্প্রতিক চীন সফরে অভিযোগ জানানোর মতন কিছু ঘটেনি।
সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, লে. জে. (অব.) মাহবুবুর রহমান, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী,চেয়ারপার্সনের প্রেসসচিব মারুফ কামাল খান সোহেল প্রমুখ।

এম. এস/১৭.১০
বিভাগ: প্রধান সংবাদ    দেখা হয়েছে ৪৭৩ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :