ব্রেকিং নিউজ:
ভোটের জন্য প্রস্তুত যুক্তরাষ্ট্র
নিউজ ডেস্ক    নভেম্বর ০৬, ২০১২, মঙ্গলবার,     ০৪:১০:২৪

 

আর মাত্র কয়েক ঘন্টার মধ্যে শুরু হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন। কিছুক্ষণ আগে প্রচারণা শেষ করেছেন বারাক ওবামা এবং মিট রমনি।
বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর এ রাষ্ট্রের শীর্ষ পদে কে আগামী চার বছরের জন্য নির্বাচিত হচ্ছেন- পুরো বিশ্ব তা দেখার অপেক্ষা করছে।
স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সকালে (বাংলাদেশ সময় রাত) যুক্তরষ্ট্রের ৫০টি রাজ্য ও ওয়াশিংটন ডিসিতে শুরু হবে এ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। অবশ্য প্রায় ৪০ শতাংশ ভোটার এবার আগাম ভোট দিয়েছেন বলে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।
সর্বশেষ জরিপেও দেখা যাচ্ছে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও রিপাবলিকান দলের প্রার্থী মিট রমনির মধ্যে ব্যবধান সামান্য।
বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও জরিপ সংস্থা ইপসোসের সোমবারের জরিপে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ৪৮ শতাংশ ওবামাকে ভোট দেবেন বলে জানিয়েছেন। আর ৪৬ শতাংশ বলেছেন রমনির কথা।
এ নির্বাচনে প্রার্থীর সংখ্যা ২৭ হলেও আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন এ দুজনই। আর শেষ মুহূর্তে এসেও বিশ্লেষকরা বলছেন, এবার ওবামা-রমনি লড়াই হবে হাড্ডাহাড্ডি। শেষ পর্যন্ত ভোটারদের রায় ও ইলেকটোরাল কলেজ ভোটের সমীকরণই বলে দেবে- কে যাচ্ছেন হোয়াইট হাউসে।
নির্বাচনের আগের দিন তাই দোদুল্যমান ভোটারদের দলে টানতে মরিয়া প্রচার চালিয়েছেন প্রধান দুই প্রার্থী।শেষ দিনের প্রচারযজ্ঞে শমিল হয়েছেন তাদের স্ত্রীরাও। বর্তমান ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা আর রমনির স্ত্রী অ্যান রমনি শেষ মুহূর্তে নিজ নিজ স্বামীর পক্ষে ভোট জনগণকে রাজি করানোর চেষ্টা চালিয়ে গেছেন।
মিট রমনি সোমবার ফ্লোরিডা, ভার্জিনিয়া, নিউ হ্যাম্পশায়ার ও ওহাইওয় প্রচারে নামেন। এর মধ্যে ফ্লোরিডায় তিনি এগিয়ে আছেন বলে নির্বাচনী জরিপগুলোয় দেখা গেছে। একই অবস্থান রয়েছে ভার্জিনিয়াতেও।
দু’প্রার্থীর শেষ প্রচারে অর্থনীতির বিষয়টি নিয়ে পাল্টাপাল্টি যুক্তিতর্কই প্রাধান্য পায়। ওবামার শাসনামলে অর্থনৈতিক রেকর্ড নিয়ে প্রচার চালিয়েছেন রমনি।
অন্যদিকে, ওবামা অর্থনৈতিক অগ্রগতির প্রতিবেদন ভোটারদের সামনে তুলে ধরে বলছেন, তিনি উন্নতি করেছেন। কিন্তু সেই কাজ শেষ করার জন্য তার আরেকবার ক্ষমতায় আসা প্রয়োজন।
ওবামা সোমবার প্রচার চালান উইসকনসিন, আইওয়া আর ওহাইওতে। এই তিন রাজ্যে জয়ের পাল্লা সামান্য ঝুঁকে রয়েছে ওবামার দিকেই।
দুই প্রার্থীই প্রচারাভিযান শেষ করেছেন ওহাইও অঙ্গরাজ্যে। বিশ্লেষকরা বলছেন, এ রাজ্যে জয় পাওয়া বিশেষ করে রমনির জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ রাজ্যে জিততে না পারলে নির্বাচনী দৌড়ে জয় পাওয়া রমনির জন্য কঠিন হয়ে যাবে।
যে প্রার্থী অন্তত ৫৩৮টি ইলেকটোরাল ভোটের মধ্যে কমপক্ষে ২৭০টি পাবেন, শেষ বিচারে তিনিই হবেন বিজয়ী। ২০০৮ সালে ওবামা পেয়েছিলেন ৩৬৫টি ইলেকটোরাল কলেজ ভোট এবং পপুলার ভোট পেয়েছিলেন ৫২.৯ শতাংশ।
বাংলাদেশ সময় বুধবার সকাল ৯টা থেকে নির্বাচনের ফল আসা শুরু করবে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যমগুলো।

এ.আর/১২২২
বিভাগ: বিশ্বযোগ   দেখা হয়েছে ৫৮৫ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :