ব্রেকিং নিউজ:
বাংলাদেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতির পরিবর্তন চান প্রবাসী রাজনীতিবিদরা
নিউজ ডেস্ক    নভেম্বর ০৯, ২০১২, শুক্রবার,     ০১:০৭:৫১

 

হেরে গিয়েও একটা জায়গায় বিজয়ী হয় যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান প্রার্থী মিট রমনি। ঐতিহ্য মেনে ফল প্রকাশের সাথে সাথে তা মেনে নিয়েছেন তিনি। অথচ বাংলাদেশের রাজনীতিতে এমন দৃষ্টান্ত নেই উল্লেখ করে প্রবাসে রাজনীতি করা দুই নেতা বললেন, দীর্ঘদিনের অবিশ্বাস থেকে দেশে এই অবস্থা তৈরি হয়েছে। গণতন্ত্রকে এগিয়ে নিতে অবস্থা বদলাতে হবে বলে মনে করেন দেশের শীর্ষ দুই দলের যুক্তরাষ্ট্র শাখার নেতারা।
নির্বাচনী বৈতরণী পেরিয়ে বারাক ওবামা আবারো নির্বাচিত হলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট। ডেমোক্রেট ও রিপাবলিকান প্রার্থীদের দীর্ঘ লড়াইয়ে প্রচার প্রচারণা,বিতর্ক আর নিজেদের অবস্থান ভোটারদের কাছে তুলে ধরার পাশাপাশি একে অপরকে আক্রমণ করে বক্তব্যও দিতে দেখা গেছে তাদের।
অথচ নির্বাচনের ফল যখন বারাক ওবামার পক্ষে, তখন তাঁকে অভিবাদন জানাতে খুব বেশি সময় নিলেন না প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী মিট রমনি। যা বাংলাদেশের রাজনীতিতে কখনই দেখা যায়না।
মিট রমনি কেবল ওবামাকে নয়, শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তার পরিবারকেও। একসাথে কাজ করার ঘোষণাও দিয়েছেন। প্রবাসে বাংলাদেশের রাজনীতি করেন এমন দুই নেতা বলেছেন, এভাবে হেরে গিয়েও বার বার জিতে যায় পরাজিত প্রার্থীও।
নিউইয়র্ক সিটি আওয়ামী লীগের সভাপতি কমান্ডার নূর-উন-নবী এবং যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি গিয়াস আহমেদ, ভীন্ন আদর্শের এই দুই নেতাই মনে করেন, রাজনীতিতে দীর্ঘদিন ধরে চলা অবিশ্বাসের কারণে বাংলাদেশে এমন সংস্কৃতি তৈরি করা যায়নি। যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারি এই দুই নেতা আশা করছেন একদিন বাংলাদেশেও এমন রাজনৈতিক পরিবেশ তৈরি হবে।
এস.এ.এ/এস.এম.বি/১২.৫০
বিভাগ: প্রধান সংবাদ    দেখা হয়েছে ৪১৩ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :