ব্রেকিং নিউজ:
গাজায় ৭৫ হাজার সৈন্য পাঠাবে ইসরায়েল; শিশুসহ নিহত ২৯
নিউজ ডেস্ক    নভেম্বর ৩০, , সোমবার,     ১২:২৯:১৪

 


গাজাতে হামাসের সদর সপ্তরকে লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরাইল। এর আগে জেরুজালেমে রকেট হামলার পর গাজায় ৭৫ হাজার সৈন্য পাঠানোর অনুমোদন দিয়েছে ইসরায়েলি মন্ত্রিসভা।

শুক্রবার ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড থেকে জেরুজালেম লক্ষ্য করে রকেট হামলার পর ইসরায়েলী মন্ত্রিসভা এই অনুমোদন দেয়। একদিন আগে তেলআবিব লক্ষ্য করেও রকেট হামলা চালায় হামাস। গত সপ্তাহে গাজায় ইসরায়েলের বিমান হামলায় হামাসের সামরিক শাখার প্রধান নিহত হওয়ার পর থেকেই উত্তেজনা চলছে। শনিবার ভোরেও জেরুজালেম ও এর আশেপাশের এলাকায় রকেট হামলা চালিয়েছে হামাস গেরিলারা। ইসরাইলি সেনা কর্মকর্তারা জানান, এর আগে আর কখনোই জেরুজালেমে হামলা করেনি হামাস।

ইসরাইলী সেনা মুখপাত্র আভিতাল লিবোভিচ জানিয়েছেন, ‘এক ঘণ্টা আগে জেরুজালেমে সাইরেন বেজেছে। আমি নিশ্চিতভাবেই বলতে পারি ওখানে রকেট হামলা করা হয়েছে। তবে কোনো ক্ষয় ক্ষতি হয়নি।’

এদিকে গাজায় ইসরাইলী হামলায় এখন পর্যন্ত মারা গেছে ২৯ জন ফিলিস্তিনি। তাদের মধ্যে আছে চার বছরের এক শিশুও। গাজার শিফা হাসপাতাল পরিদর্শনে এসে গাজা আর মিশরের প্রধানমন্ত্রী এসে দেখলেন এক হৃদয় বিদারক দৃশ্য। বাবার কোলে চার বছরের সন্তানের প্রাণহীন দেহ।
গাজায় ইসরাইলী হামলায় এক শিশুও মারা গেছে এই দাবি অস্বীকার করেছিলো ইসরায়েল। চার বছরের শিশুটির শোক যাত্রাই প্রমান করে দিলো দাবিটি মিথ্যে ছিলো না। নিজের চোখে তা দেখলেন মিশরের প্রধানমন্ত্রীও।

মিসরের প্রধানমন্ত্রী হিশাম কান্দিল বলেছেন, ‘গাজায় এসে আমি যা দেখলাম তা খুবই দুঃখজনক। শহীদ শিশুটির রক্ত এখনো আমার জামায় লেগে আছে। এই রক্ত আমাদের ভাইয়ের রক্ত। বিষয়টি খুবই কষ্টের।’

শিশুটির শোকযাত্রায় অংশ নিচ্ছেন হাজারো মানুষ। ইসরায়েলের হামলার প্রতিবাদ জানাচ্ছেন তারা। কিন্তু শোকে স্তব্ধ শিশুটির বাবা-মা। বিনা অপরাধে প্রাণ হারাতে হলো তাদের ছোট্ট শিশুটিকে। তাই অবিলম্বে গাজায় ইসরাইলী হামলা বন্ধের দাবি জানিয়েছে গাজার আতঙ্কিত মানুষ।
বি.টি/এস.এম.বি/১২.৩০

বিভাগ: বিশ্বযোগ   দেখা হয়েছে ৫১১ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :