ব্রেকিং নিউজ:
স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছেনা দুদক
নিউজ ডেস্ক    ডিসেম্বর ০১, ২০১২, শনিবার,     ১২:৩২:২৮

 

উপযুক্ত সাক্ষ্য প্রমাণ না পাওয়ার কারণে সরকারি প্রতিষ্ঠানের দুর্নীতি’র বিরুদ্ধে তেমন কার্যকর ব্যবস্থা নিতে পারছে না দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক। খোদ দুদক চেয়ারম্যান গোলাম রহমান বলছেন, কাগজে-কলমে স্বাধীন হলেও প্রকৃতপক্ষে অনেক ক্ষেত্রেই পরাধীনতার শৃঙ্খলে আটকা পড়ে আছে প্রতিষ্ঠানটি।
২০০৪ সালে যাত্রা শুরু করার তিন বছর পর মূলত সক্রিয় হয় দুর্নীতি দমন কমিশন। ২০০৮ সালে ঢাকা সিটি করপোরেশন এবং স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের দুর্নীতি অনুসন্ধানের মাধ্যমে শুরু হয় প্রাতিষ্ঠানিক কার্যক্রম। তখন এ কাজে ছিল মাত্র চার সদস্যের একটি দল।
দুদকের বিশেষ অনুসন্ধান ও তদন্ত বিভাগের উপপরিচালক মোহাম্মাদ তাহেদুজ্জামান জানান, গত চার বছরে প্রতিষ্ঠানটির কাজের পরিধি বেড়েছে। বর্তমানে ১১টি প্রতিষ্ঠানের দুর্নীতি খতিয়ে দেখছে দুদক। তবে প্রাতিষ্ঠানিক দুর্নীতি তদন্তে তেমন অগ্রগতি নেই বলে জানিয়েছেন দুদকের কর্মকর্তারা। এসময়ের মধ্যে আদালতে উঠেছে মাত্র ৩০ শতাংশ মামলা।
তথ্য উপাক্ত নিয়ে মামলা করলেও সরকারি কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অনেকেই সাক্ষী দিতে চায় না বলে জানান দুদকের তদন্তকারী কর্মকর্তারা। কিন্তু দুদক চেয়ারম্যান দাবি করেছেন প্রাতিষ্ঠানিক দুর্নীতি তদন্তে তারা ভালো করছেন। তবে অনেক সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে পরাধীনতার কথা অকপটে স্বীকার করেছেন দুদক চেয়ারম্যান গোলাম রহমান।
বর্তমানে ১১টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা রয়েছে ৩৮টি। এর মধ্যে ছয়টি মামলা সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত সরকারি প্রতিষ্ঠানের তালিকায় থাকা সড়ক ও জনপথ বিভাগের বিরুদ্ধে।
এস.এন/এস.এম.বি/১২.৩০
বিভাগ: প্রধান সংবাদ    দেখা হয়েছে ১৪৪৫ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :