ব্রেকিং নিউজ:
ইতিহাসের প্রথম গণতান্ত্রিক নির্বাচনে ভোট দিচ্ছে লিবিয়ার মানুষ
আ. শাওন/ মা. সাঈফ    জুলাই ০৭, ২০১২, শনিবার,     ১২:৪৩:২২

 

চারদশকেরও বেশি সময় ধরে গাদ্দাফির স্বৈরশাসনের পর আজ গণতন্ত্রের পথে এগুনোর জন্য ভোট দিচ্ছেন লিবিয়ার সাধারণ মানুষ। ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় এবং রাজধানী ত্রিপলির ভোটগ্রহণ কেন্দ্রগুলোর বাইরে দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। মানুষের মধ্যে ঐতিহাসিক এই নির্বাচন নিয়ে দেখা গেছে বিপুল আগ্রহ উদ্দীপনা ।
তবে বন্দরনগরী বেনগাজিতে গুলির ঘটনা এই নির্বাচনকে কিছুটা হলেও শঙ্কায় ফেলেছে। সকালে লিবিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় শহর বেনগাজীতে নির্বাচনী জিনিসপত্র বহনকরা একটি হেলিকপ্টারে গুলি চালানো হয়েছে। এতে এক নির্বাচনকর্মী মারা গেছে। হেলিকপ্টারটি বেনগাজী থেকে, আরেক শহর তুকারা যাচ্ছিল। গুলির পর হেলিকপ্টারটি কাছাকছি একটি বিমানবন্দরে জরুরী অবতরন করে। এই ঘটনার পর বেনগাজির নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।
এরপর ভোট শুরুর কয়েকঘন্টা পর বেনগাজিতে বিক্ষিপ্ত কিছু সংঘর্ষ হয়। বেনগাজির কেন্দ্রীয় শহর সেভিয়াতে নির্বাচনী কেন্দ্রে ব্যাপক ভাঙচুর চালায় বিক্ষোভকারীরা।
এসময় ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। ব্যালট পেপার আগুনে পুড়িয়ে দেয়া হয়। এছাড়া ব্যালট বাক্সও ভাঙচুর করে। স্থানীয় ভোটারদের অভিযোগ,বিক্ষোভকারীরা তাদের উপর হঠাৎ হামলা করেছে। বাধা দিয়েছে ভোট দানে।
এছাড়া শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত দেশটির রাজধানী ত্রিপোলী ব্রেগাসহ সহ অন্যান্য প্রধান শহরে শান্তিপূর্নভাবেই ভোট গ্রহন চলছে। স্থানীয় সময় সকাল ৮ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত চলবে এই ভোট গ্রহণ। ২ কোটি ২৮ লাখ মানুষের দেশ লিবিয়ায় ভোটার মাত্র ২৮ লাখ।
মোট দুশো আসনের ন্যাশনাল কংগ্রেসের জন্য লড়ছেন প্রায় আড়াই হাজার প্রার্থী। আজকের ভোটে নির্বাচিতরা দায়িত্ব পালন করবেন মাত্র একবছর। এই সময়ের মধ্যে ২০১৩ সালের একটা অবাধ নির্বাচনের জন্য পরিবেশ তৈরী করবেন তারা। গণতন্ত্রকে এগিয়ে নিতে রচনা করবেন একটি সংবিধান।

এ.এস./ এম. এস./ ১৮.২৫
বিভাগ: বিশ্বযোগ   দেখা হয়েছে ৬৭৩ বার.

 

শেয়ার করুন :

 
মন্তব্য :