ঢাকা ০৫ জুলাই ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯

পরবর্তী নির্বাচন: জাতীয় পার্টির সঙ্গে রাষ্ট্রপতির সংলাপ

নিজস্ব প্রতিবেদক, একাত্তর
প্রকাশ: ২০ ডিসেম্বর ২০২১ ১৮:২৬:২৫ আপডেট: ২০ ডিসেম্বর ২০২১ ১৯:৫৫:৪৮
পরবর্তী নির্বাচন: জাতীয় পার্টির সঙ্গে রাষ্ট্রপতির সংলাপ

পরবর্তী নির্বাচন কমিশন গঠনের কাজ শুরু করতে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ রাজনৈতিক দলগুলোর সাথে সংলাপে বসছেন। এরই অংশ হিসেবে প্রথম দল হয়ে বঙ্গভবনে গেছে জাতীয় সংসদের প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টি।

সোমবার (২০ ডিসেম্বর) সংলাপের জন্য বিকাল পৌনে ৪টার দিকে বঙ্গভবনে প্রবেশ করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদেরের নেতৃত্বে আট সদস্যের প্রতিনিধি দল।

প্রতিনিধি দলের অন্যরা হলেন দলের চেয়ারম্যান জি এম কাদের, সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, কাজী ফিরোজ রশিদ, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, দলটির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু, কো-চেয়ারম্যান সালমা ইসলাম এবং দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও জাতীয় সংসদে বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা।

আরও পড়ুন: করোনায় একদিনে দুই মৃত্যু, শনাক্ত ২৬০

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদার নেতৃত্বাধী বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ২০২০ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি। নতুন কমিশন গঠনের জন্য সংসদে প্রতিনিধিত্বশীল রাজনেতিক দলগুলোর মতামত জানতেই রাষ্ট্রপতির এ সংলাপ।

এদিকে, জাতীয় সংসদে প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্র্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদেরের নেতৃত্বে ০৮ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদলকে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ বঙ্গভবনে তাদের স্বাগত জানিয়ে বলেন, নির্বাচন কমিশন নির্বাচনী প্রক্রিয়ার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান। বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ ফেব্রুয়ারি মাসেই শেষ হবে। তার পূর্বেই একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন কমিশন গঠনের লক্ষ্যে রাজনৈতিক দলগুলোর সাথে আলোচনার এই উদ্যোগ। 

তিনি আশা প্রকাশ করেন, রাজনৈতিক দলগুলোর মতামত ও পরামর্শের ভিত্তিতে একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন কমিশন গঠন সম্ভব হবে এবং নতুন নির্বাচন কমিশন জাতীয় নির্বাচনসহ সকল নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে সম্পাদন করতে সক্ষম হবে। 

তিনি এ ব্যাপারে সকল রাজনৈতিক দল ও সুশীল সমাজের সহযোগিতা কামনা করেন। 

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান স্বাধীন ও নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠনে তাদের প্রস্তাবনাসমূহ তুলে ধরেন। তারা আলোচনার এই উদ্যোগ নেয়ার জন্য রাষ্ট্রপতিকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান। 

রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ুয়া, সামরিক সচিব মেজর জেনারেল এস এম সালাহ উদ্দিন ইসলাম, রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মোঃ জয়নাল আবেদীন এবং সচিব (সংযুক্ত) মোঃ ওয়াহিদুল ইসলাম খান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।



একাত্তর/এসএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

৩ দিন ১৩ ঘন্টা আগে