ঢাকা ০৫ জুলাই ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯

বাংলা সিনেমা: ২০২০’র খরা একুশেও কাটেনি, এবার চোখ ২২ এর দিকে

বুলবুল আহমেদ জয়, একাত্তর
প্রকাশ: ০১ জানুয়ারী ২০২২ ১৬:৫২:০৪
বাংলা সিনেমা: ২০২০’র খরা একুশেও কাটেনি, এবার চোখ ২২ এর দিকে

কথা ছিল ২০২০ সালের খরা কাটিয়ে ২০২১ সালের অতিমারীর থাবায় বিপর্যস্ত বাংলা সিনেমা ঘুরে দাঁড়াবে। কিন্তু তা আর সম্ভব হয়নি। বছর শেষে বেশ কিছু সিনেমা মুক্তি পেলেও দর্শক টানেনি সেই গুলো। তাই ২০২২ সালের দিকেই তাকিয়ে সিনেমার মানুষ। 

সিনেমা সংশ্লিষ্টর জানান, ২০২০ সালে মুক্তি পেয়েছিল মাত্র ১৬টি সিনেমা। আর ২০২১ এ মুক্তি পেয়েছিল ৩০টি। সংখ্যার হিসেবে ২০২১ এ ছবি সংখ্যা বেশি থাকলেও শুধুমাত্র মিশন এক্সট্রিম মুক্তি পেয়েছিল সর্বাধিক প্রেক্ষাগৃহে। যদিও বিগবাজেটের সিনেমা হওয়া সত্ত্বেও অতিমারির শঙ্কা কাটিয়ে খুব বেশি সংখ্যায় দর্শক টানতে পারেনি সিনেমাটি। 

তবে  বছর শেষে মৃধা বনাম মৃধার মতো বেশ কিছু ভিন্নধারার দর্শক নন্দিত সিনেমা মুক্তি পেলেও সিনেমার জন্য অন্ধকারের বছর বলেই মনে করছেন চলচ্চিত্রের কলাকুশলীরা। 


বাংলা সিনেমার মিষ্টি মেয়ে চিত্রনায়িকা মৌসুমি বলেন, করোনার কারণে চলচ্চিত্র যতটুকু এগিয়ে ছিল, এই দুই বছরে তার দ্বিগুণ পিছিয়ে গেলো। আমাদের ইনভেস্টমেন্ট কমে গেছে। যে হল গুলো চালুর প্রক্রিয়াধীন ছিল, সেগুলোও থেমে গেছে। এসব কারণে নতুন প্রোডাক্ট আসছেনা। 

এদিকে ২০২১ সালের সিনেমা জটের ধাক্কা গিয়ে পড়বে নতুন বছরেই। তাই ২০২২ সালে মুক্তির অপেক্ষায় থাকা, অপারেশন সুন্দরবন, শান, দিন দ্যা ডে, এর মত সিনেমাগুলো নিয়ে হল মালিকদের পাশাপাশি প্রযোজক পরিচালকেরাও বেঁধেছে আশায় বুক।

কিন্তু ২০২২ ও কি ২১ এর মত আশা হত করবে, নাকি আশাজাগানিয়া বছরের তকমা নিয়েই নতুন করে ঘুরে দাঁড়াবে বাংলা সিনেমা সেটাই এখন দেখার বিষয়।


চলচ্চিত্র পরিচালক সোহানুর রহমান সোহান বলেন, তবে বিগত বছরে সরকারি অনুদানের পরিমাণ ও ছবির সংখ্যা যেমন বেড়েছে তা অব্যাহত রেখে আগামীতে প্রেক্ষাগৃহের মান বাড়ালে দর্শক বাড়বে।  এমনটাও মন্তব্য সবারই।

 

একাত্তর/এসি

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

বাতাস যখন ভয়ঙ্কর-২

৩ দিন ১৫ ঘন্টা আগে