ঢাকা ১৮ মে ২০২২, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

নির্বাচনের তিনদিন পর মিললো পরাজিত প্রার্থীর মরদেহ

নিজস্ব প্রতিনিধি, নোয়াখালী
প্রকাশ: ০৯ জানুয়ারী ২০২২ ১২:৫৯:২২ আপডেট: ০৯ জানুয়ারী ২০২২ ১৬:০৮:৩৩
নির্বাচনের তিনদিন পর মিললো পরাজিত প্রার্থীর মরদেহ

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে নির্বাচনের তিনদিন পর মাছের প্রকল্প থেকে এক ইউপি সদস্য প্রার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার (৯ জানুয়ারি) সকাল ৯টার টার দিকে উপজেলার বজরা ইউনিয়নের তিন নম্বর ওয়ার্ডের ছনগাঁও গ্রামের রাস্তা সংলগ্ন একটি মাছের প্রকল্প থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত জহিরুল ইসলাম (৫৩) উপজেলার বজরা ইউনিয়নের তিন নম্বর ওয়ার্ডের মৃত হায়াত আহমদের ছেলে। একই ওয়ার্ড থেকে পঞ্চম ধাপে অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া ইউপি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেন জহির। 

নিহতের ছোট ভাই জাকির জানান, শনিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে কে বা কারা তার ভাইকে মুঠোফোনে কল করে ডেকে নেয়। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন।  

পরদিন রোববার সকাল ৬টার দিকে রাস্তার পাশে একটি জমিতে তার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী।  

আরও পড়ুন: পাবনায় ট্রাকচাপায় দুইজন নিহত

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত জহির স্থানীয় বজরা বাজারের একজন ব্যবসায়ী ছিলন। গত ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে তিনি ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী ছিলেন। 

ওই নির্বাচনে তিন জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। তালা প্রতীকে ওই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে তিনি দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেন।    

সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন অর রশীদ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহের সুরতহাল সম্পন্ন করে মরদেহ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। 

নিহতের গায়ে কোন আঘাতের চিহ্ন ছিল না। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে বলে জানান তিনি।          


একাত্তর/এসজে 

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন