ঢাকা ০১ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯

সাইফ উদ দোহা শহীদ মারা গেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক, একাত্তর
প্রকাশ: ১০ জানুয়ারী ২০২২ ১১:৪৫:০১ আপডেট: ১০ জানুয়ারী ২০২২ ১৭:০১:৫৭
সাইফ উদ দোহা শহীদ মারা গেছেন

ড. সাইফ উদ দোহা শহীদ মারা গেছেন। প্রথম বাংলা সফটওয়্যারের উদ্ভাবক ছিলেন তিনি।

সোমবার (১০ জানুয়ারি) যুক্তরাষ্ট্রের নিউ মেক্সিকোর আলবুকার্কের একটি নার্সিং হোমে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

বেশ কয়েকবছর ধরে সাইফ উদ দোহা আলঝেইমারসহ বিভিন্ন শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন।

এ বিষয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার একাত্তরকে বলেন, ড. সাইফ উদ দোহা শহীদ দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। আমি কয়েকটি নির্ভরযোগ্য সূত্রে তার মৃত্যুর সংবাদ জেনেছি। তিনি বাংলা ভাষার জন্য গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে গেছেন। তিনি শুধু লেখার চেষ্টাই করেননি কিবোর্ড লেআউট এবং অপারেটিং সিস্টেম দুটোকেই বাংলায় অনুবাদ করেন। সে অর্থে আমি মনে করি এটা একটা মাইলফলক। আমাদের জাতীয় গণমাধ্যম ইন্সটিটিউটে প্রথম তার সফটওয়্যারটি ব্যবহার করা হয়। এবং সেটি থেকে কম্পিউটারে বাংলা ব্যবহারের সূত্রপাত হয়। আমরা তার কাছে কৃতজ্ঞ।

জানা যায়, ১৯৮৫ সালের ২৫ জানুয়ারি ‘শহীদ লিপি’র মাধ্যমে ম্যাকিনটস কম্পিউটারে প্রথম বাংলা টাইপ করে একটি চিঠি লেখার মধ্য দিয়েই কম্পিউটারে বাংলা ভাষা লেখার প্রচলন করেন সাইফ উদ দোহা শহীদ। ওই দিনটিকে কম্পিউটারে বাংলা প্রচলন দিবস হিসেবে পালন করা হয়।

পেশায় যন্ত্রকৌশলী হলেও বেক্সিমকোতে চাকরিরত অবস্থায় ১৯৮৩ সালের দিকে তাদের কম্পিউটার সিস্টেমের দায়িত্বে ছিলেন সাইফ উদ দোহা। তখন থেকেই তিনি বাংলা কম্পিউটিংয়ের উপর কাজকর্ম শুরু করেন। তবে বেশি দূর এগোতে পারেননি ‘শহীদ লিপি’ নামে বাংলা সফটওয়্যার।

১৯৮৪ সালে সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত উদ্যোগে এবং খানিকটা ম্যাকিনটস কর্পোরেশনের প্রযুক্তিগত সহায়তায় ম্যাক কম্পিউটারের জন্য বাংলা ফন্ট ‘যশোর’, কিবোর্ড লেআউট ‘শহীদ লিপি’ এবং বাংলা ইন্টারফেইসে ম্যাক সিস্টেম ডেভেলপ করেন।


১৯৮৫ সালে তিনি এই সিস্টেম ব্যবহার করে কম্পিউটারে প্রথম বাংলা চিঠি লেখেন তার মা’কে। এরপর ইউএনডিপিসহ প্রায় একশ’র মতো প্রতিষ্ঠান তার এই সিস্টেম কেনে এবং ব্যবহার শুরু করে।

আরও পড়ুন: বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ

শহীদলিপি নামকরণ নিয়ে প্রকৌশলী সাইফ উদ দোহা শহীদ একটি ব্লগে লেখেন, ‘১৯৬৫ থেকে ১৯৬৯’ – এ চার বছর যখন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র – তখন প্রতিটি শহীদ দিবসে শহীদ মিনারে যেতাম প্রভাত ফেরীতে যোগ দিয়ে। শেষের বছরগুলোতে ছাত্র রাজনীতিতে যুক্ত হওয়ার কারণে আরও ব্যস্ততায় কাটতো ওই দিনটি। ফলে ১৯৮৫ সালে যখন লন্ডন থেকে কম্পিউটারে প্রথম বাংলায় চিঠি লিখে পাঠালাম ঢাকাতে আমার মা’কে, তখন একটা নামই শুধু মনে এসেছিল– শহীদলিপি।


একাত্তর/আরএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন