ঢাকা ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ৩ মাঘ ১৪২৮

করোনার টিকা পাবেন প্রতিবন্ধীরা, তালিকার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, একাত্তর
প্রকাশ: ১৪ জানুয়ারী ২০২২ ২০:৩৭:৫২ আপডেট: ১৪ জানুয়ারী ২০২২ ২১:১৮:৩৩
করোনার টিকা পাবেন প্রতিবন্ধীরা, তালিকার নির্দেশ

করোনা প্রতিরোধে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের টিকার আওতায় আনার জন্য তালিকা তৈরির নির্দেশ দিয়েছে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) মন্ত্রণালয়ের উপসচিব শবনম মুস্তারী স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশ দেওয়া হয়।

এতে বলা হয়, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের প্রতিকূলতা বিবেচনায় টিকা পাওয়া সহজ করার জন্য এ কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে। তারা যাতে সহজেই টিকাদান কেন্দ্রে আসতে পারে, এবং ভোগান্তি এড়াতে পারে সে বিষয়টি নিশ্চিত করবেন সমাজসেবা কর্মকর্তারা।

একই সাথে বিজ্ঞপ্তিতে টিকা গ্রহণকারী ব্যক্তি বা শিক্ষার্থীদের তথ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব বরারর পাঠাতে বলা হয়েছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, শারীরিক কোনো জটিলতা না থাকলে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের করোনা টিকা নিতে কোনো বাধা নেই। প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের নিজের সুরক্ষায় সমস্যা হয়। তাই ১৮ বছরের উপরের সব প্রতিবন্ধীকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনা টিকার আওতায় আনার পরামর্শ ছিলো তাদের।

সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে দেশের মোট জনসংখ্যার ১০ ভাগ মানুষের শারীরিক, মানসিক, বুদ্ধি, দৃষ্টি, শ্রবণ প্রতিবন্ধী এবং অটিজম সংক্রান্ত জটিলতা রয়েছে।

সেই হিসেবে, দেশে প্রতিবন্ধীর সংখ্যা এক কোটি ৬০ লাখ। এদের শতকরা ৪৫ ভাগ ১৮ বছরের নীচে আর বাকি ৫৫ ভাগ ১৮ বছরের উপরে। এই সংখ্যার বেশীরভাগই নিউরো সংক্রান্ত জটিলতায় আক্রান্ত।


স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যানুসারে, ১৮ বছরের উপরে যেকোনো ধরনের প্রতিবন্ধী ব্যক্তি স্বাভাবিক মানুষের মতই করোনা টিকা নিতে পারবে। যাদের শারীরিক অন্য জটিলতা থাকবে তাদের চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

প্রসঙ্গত, দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা বলছেন, হাতের স্পর্শে তাদের প্রাত্যহিক জীবনযাপন করলেও তাদের পক্ষে বিভিন্ন রোগতত্ত্ব ও রোগ নিয়ন্ত্রণ সংস্থা সাড়ে ছয় ফুট সামাজিক দূরত্ব ও বারবার হাত ধোয়ার নিয়ম মানা অন্যদের তুলনায় কষ্টকর।

এছাড়া করোনা মোকাবিলায় গ্রামের বা প্রত্যন্ত অঞ্চলের বেশিভাগ মানুষের সচেতনতা নির্ভর করে সরকারি/বেসরকারি প্রচার-প্রচারণার ওপর। সরকারের চেষ্টা থাকলেও তা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল এবং অনেক ক্ষেত্রে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য অপ্রবেশযোগ্য।

আরও পড়ুন: কোভ্যাক্সের টিকা যেভাবে আসছে বাংলাদেশে, যারা পাচ্ছেন

তাছাড়া বেসরকারি টেলিভিশনগুলো এখনো ইশারা ভাষায় সংবাদ উপস্থাপনের ব্যবস্থা করতে পারেনি। যার ফলে বাক এবং শ্রবণ প্রতিবন্ধীরা করোনার বিষয়ে যথাযথ তথ্য বা আপডেট পান না।


একাত্তর/আরএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন