ঢাকা ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১১ কার্তিক ১৪২৮

জকোকে হারিয়ে ইউএস ওপেন জিতে বিস্মিত মেদভেদেভ

নাজমুল রানা, একাত্তর
প্রকাশ: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৩:২৫:৪১ আপডেট: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৬:০৩:১০
জকোকে হারিয়ে ইউএস ওপেন জিতে বিস্মিত মেদভেদেভ

একুশতম গ্র্যান্ড স্ল্যামটা জেতা হলো না নোভাক জকোভিচের। লেখা হলো ইতিহাস। ইউএস ওপেন টেনিসের ফাইনালে রাশিয়ার যুবক ড্যানিয়েলের কাছে হারলেন জকোভিচ।

রাফায়েল নাদাল আর রজার ফেদেরারকে টপকে যেতে জকোর সামনে এটাই ছিলো মোক্ষম সুযোগ। কিন্তু সেই সুযোগ তার হাতছাড়া হলো রুশ টর্পেডোর কাছে।

মহাকালকে সাক্ষী রেখেই যেনো লুটিয়ে পড়া। তারপর উঠে দাঁড়িয়ে ঈশ্বরের সাথে বুক মিলিয়ে তাকেই যেনো বলা শক্তি দাও, ভালোবাসায় ভরাও চারপাশ, আমিও যে এবার উড়তে চাই।


ইউএস ওপেনের কোর্টে সার্বিয়ান টেনিস দেবতা নোভাক জকোভিচকে হারালেন। মেদভেদেভ যেনো ঘটালেন অবিশ্বাস্য কিছু।

আরশের দেবতাকে নীচে নামানোর এই ঘটনা অবাক করেছে সবাইকে। জকোভিচ কিংবা মেদভেদেভ দুই জনের চোখেও ছিলো বিস্ময়।

ছয় চার, ছয় চার আর ছয় চার। তিনটা গেমেই রাশিয়ান যুবকের একই ফল। জকোকে কোনো গেমেই চারের গণ্ডিটা পেরুতে দিলেন না। দানে দানে তিন মিলিয়ে নিলেন নিজের মতো।


দিন খারাপ গেলে এমনই হয়। ওস্তাদের মার শেষ রাতে, এই তকমা নিজের করে নেয়া জকোরেরও যেনো কিছুই করার ছিলো না।

শিরোপা দেয়ার সময়েও তাই বুকের ভেতরে জকোর ছিলো নিঃসঙ্গতার সহস্র বছর। বিষন্নতায় মগ্ন ছিলো হতবাক চোখ। তবুও নতুন বরণে কাঁধে রাখলেন হাত। হয়তো বললেন, তরুণ তুর্কি ক্যারি অন, আমাকে বঞ্চিত করেই তোমাকে দিয়েছে বরাত।

ম্যাচ শেষে তেমনই বললেন জকো। ‘যদি কেউ গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের দাবি রাখে সেটা তুমিই। বেশ ভালো খেলেছো। আমি নিশ্চিত জীবনে তুমি আরও এমন অনেক শিরোপা জিতবে’।

বিশকে একুশ করা হলো না জকোভিচের। নতুনকেই ছেড়ে দিতে হলো স্থান। তিনবার চেষ্টার পর ফ্লাশিং মিডো মেদভেদেভের প্রথম স্বপ্ন ছোয়া। সাথে মিলে গেল টেনিস জাদুকরের আশীর্বাদ। এবার তার কেবল উড়বার ইতিহাস লিখবার পালা।


রাফায়েল নাদাল ছিলেন না, ছিলেন না রজার ফেদেরার। অনেকেই তাই বলেছিলেন এবার জকোই লিখবেন ইতিহাস উঠে যাবেন চূড়ায়।

একুশের এই মাঝ সময়েই একুশটা গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতে যাবে জেকোই। তবে দীর্ঘ হলো সেই অপেক্ষা। জানা নেই, কী রহস্যকাব্য লিখবে সময়।

 

একাত্তর/আরএইচ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন