ঢাকা ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রশ্নে সরগরম রাজনীতির মাঠ

শফিক আহমেদ, একাত্তর
প্রকাশ: ০২ অক্টোবর ২০২১ ১৯:২০:৫১ আপডেট: ০২ অক্টোবর ২০২১ ২০:১৭:৪৩
তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রশ্নে সরগরম রাজনীতির মাঠ

সংবিধান অনুযায়ী বিএনপির তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি অযৌক্তিক বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। 

অন্যদিকে, বিএনপি নেতারা বলছেন, একসময় আওয়ামী লীগই এই দাবি করেছিলো। এখন ভরাডুবি হবে বলে তারা মিথ্যাচার করছে। 

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হতে এখনো দুই বছরের বেশি বাকি থাকলেও রাজনৈতিক অঙ্গনে ইসি পুনর্গঠন এবং নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। 

বিএনপির নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা পুনর্বহালের দাবি নিয়ে কথা বলেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। নিয়মিত সংবাদ ব্রিফিং কাদের বলেন, সংবিধান অনুযায়ী বিএনপির দাবি মেনে নেয়ার কোনো সুযোগ নেই।

কাদের বলেন, ‘নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার গঠন করলে নাকি তারা নির্বাচনে অংশ নিবেন। আসলে বিএনপি ভালো করেই জানে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের বিষয়টি একটি মীমাংসিত বিষয়’।

তিনি প্রশ্ন রাখেন, ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার বাতিল কে করেছে? উচ্চ আদালতের রায়ের আলোকে তত্ত্বাবধায়ক সরকার বাতিল হয়েছে, এ পদ্ধতি ছিলো একটি অন্তর্বর্তীকালীন ব্যবস্থা। দীর্ঘ মেয়াদে তত্ত্বাবধায়ক সরকার চলতে পারে না’।

অন্যদিকে, রোববার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউটে এক আলোচনা সভায় বিএনপি নেতারা বলেন, নির্দলীয় তত্ত্বাধায়ক সরকার পুনর্বহাল না হলে, দক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন করলেও সুষ্ঠু নির্বাচন হবে না। করা সম্ভবও নয়।

বিএনপির মহাসচিব বলেছেন, 'নির্বাচন নির্বাচন খেলা আর হবে না। নির্বাচন হতে হলে অবশ্যই একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে হবে। নির্বাচন হতে হলে অবশ্যই একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় নির্বাচন হতে হবে’।

পাশাপাশি জনগণকে তাদের ভোটের অধিকার প্রয়োগ করতে দেওয়ার দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, 'শেষ কথা আমরা কোনো নির্বাচন মনে নে্বো না, যদি নির্বাচনকালীন একটি নিরপেক্ষ সরকার না থাকে, যদি একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় সেই নির্বাচন না হয়’।

দলটির অন্যান্য নেতারা জানান, ভোটাধিকার, গণতন্ত্র, এবং জবাবদিহিতামুলক সংসদ প্রতিষ্ঠা করাই বিএনপির আন্দোলনের মূল লক্ষ্য। 

একাত্তর/এআর

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন