ঢাকা ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের নিরাপত্তা নিয়ে উদাসীন আইসিসি

রিয়াসাদ আজিম, একাত্তর
প্রকাশ: ১১ অক্টোবর ২০২১ ১৮:৫৭:৪৭ আপডেট: ১১ অক্টোবর ২০২১ ২৩:২০:৫৬
বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের নিরাপত্তা নিয়ে উদাসীন আইসিসি

দলটার নাম বাংলাদেশ বলেই কিনা এতো অবহেলা। মাস্কাট থেকে এখন আবুধাবিতে টিম টাইগার্স। তবে তার আগে এয়ারপোর্টে পুরো দল ছিল অরক্ষিত। টিম বাস থেকে ক্রিকেটারদের অজানা কারণে নামানো-ওঠানো হয়েছে বারবার। জৈব সুরক্ষা বলয় বলতে ছিলোনা কিছুই। 

দীর্ঘ অপেক্ষার শেষে অবশেষে টিম বাংলাদেশকে বহনকারী বাস পৌঁছালো মাস্কাট ইন্টারন্যাশনাল বিমানবন্দরে। একে একে নামলেন ক্রিকেটার, কোচিং স্টাফ আর কর্মকর্তারা। এরপর যেনো আবার কি হলো, সবাইকে আবার তোলা হলো টিম বাসে। যার কোনো ব্যাখ্যা নেই কারো কাছেই।

এভাবেই আসলে চলছে বিশ্বকাপ টি টুয়েন্টির ওমান-ইউএই পর্ব। জৈব সুরক্ষা বলয়ে আইসিসির প্রায় ৫০ কোটি টাকা প্রাইজমানির মেগা ইভেন্টে অনেকটা অরক্ষিত বাংলাদেশ দল। বিভ্রান্ত ক্রিকেটাররা বাসে ওঠা-নামা করেছেন বারবার। এমনকি ক্রিকেট কিটস সরানোর জন্যও ছিলোনা কোনো ব্যবস্থা।

অধিনায়ক রিয়াদ বিমানবন্দরের ডিপারচারের বাইরে কাটালেন বড় একটা সময়। দুই সাপোর্ট স্টাফ সোহেল ইসলাম আর রমজানকে নিয়ে টি-টুয়েন্টি অধিনায়কের লাগেজ নামানো আর গোছানোর কাজ চললো।

আরও পড়ুন: ম্যাশকে ছাড়া টাইগারদের প্রথম টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ

বড় ব্যাপার হলো, ওমান পর্বে নিজেদের অর্থে প্রস্তুতি পর্ব শেষ করে আইসিসির আওতায় চলে যাওয়া দলটাকে নিয়ে ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা চরম উদাসীন। বিমান ভাড়ার খরচ কমাতে এক দিন বসিয়ে রেখে পাঠানো হয়েছে প্রস্তুতি ম্যাচ ভেন্যু আবুধাবিতে। যেখানে বিনা প্রস্তুতিতে অনুশীলন ম্যাচে নামবে টি-টুয়েন্টি র‍্যাঙ্কিংয়ের ছয় নম্বর দল।

আইসিসির এই আচরণে প্রশ্ন থেকেই যায়, বাংলাদেশের জায়গায় দলটা ইংল্যান্ড-ইন্ডিয়া বা অস্ট্রেলিয়া হলে আচরণটা একই হতো কিনা। 


একাত্তর/এসজে

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন