ঢাকা ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

করোনায় মৃত্যু ও নতুন রোগীর সঙ্গে বাড়লো শনাক্তের হারও

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ২৩ অক্টোবর ২০২১ ১৭:০৪:১৮ আপডেট: ২৩ অক্টোবর ২০২১ ১৯:০১:০৩
করোনায় মৃত্যু ও নতুন রোগীর সঙ্গে বাড়লো শনাক্তের হারও

২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২৭৮ জন। শনাক্তের হার ১ দশমিক ৮৫ শতাংশ। গতকাল ছিলো ১ দশমিক ৩৬ শতাংশ। এসময় মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, নতুন মৃত্যু নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যু হয়েছে ২৭ হাজার ৮১৪ জনের।

দেশে করোনার শনাক্তর ৫৯৪তম দিন পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে মোট সংক্রমিত হয়েছেন ১৫ লাখ ৬৭ হাজার ৪১৭ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২৯৪ জন, তাদের নিয়ে দেশে করোনাতে আক্রান্ত হয়ে মোট সুস্থ হলেন ১৫ লাখ ৩০ হাজার ৯৪১ জন।

এখন পর্যন্ত রোগী শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ৩৬ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৬৭ শতাংশ আর শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যহার এক দশমিক ৭৭ শতাংশ।

দেশে বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৮ হাজার ৬৬২ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ১৫ হাজার ২টি, আর নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৫ হাজার ৪২টি। দেশে এ পর্যন্ত করোনার মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১ কোটি ২ লাখ ৩ হাজার ৬৬৫টি। অধিদফতর জানায়, এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা হয়েছে ৭৪ লাখ ৪৭ হাজার ১৫৮টি, আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ২৭ লাখ ৫৬ হাজার ৫০৭টি।

মৃত ৯ জনের বয়স বিবেচনায় ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে রয়েছেন  একজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে একজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে একজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে চার জন, আর ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে দুই জন।

তাদের মধ্যে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনা বিভাগের রয়েছেন দুই জন করে, আর সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগের রয়েছেন একজন করে। মারা যাওয়া ৯ মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন সাত জন, বেসরকারি হাসপাতাল আর বাড়িতে মারা গেছেন একজন করে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রোগী শনাক্তের হার এক দশমিক ৮৫ শতাংশ, আর এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ৩৬ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৬৭ শতাংশ এবং মৃত্যুহার এক দশমিক ৭৭ শতাংশ। 

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গতবছর ৮ মার্চ; তা আট লাখ পেরিয়ে যায় এ বছর ৩১ মে। সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যে গত ৭ এপ্রিল রেকর্ড ৭ হাজার ৬২৬ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়। এরপর আগের সব রেকর্ড ভেঙে ৬ জুলাই ১১ হাজার ৫২৫ জনের করোনার ধরা পড়ে।

প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর গত বছরের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এ বছর ১১ মে তা ১২ হাজার ছাড়িয়ে যায়।

আরও পড়ুন: সংক্রমণ বাড়ায় বুস্টার ডোজেই আস্থা রাখছে ব্রিটেন

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান করা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডও-মিটারের আজ বিকেলের তথ্য অনুযায়ী বিশ্বে করোনায় এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪৯ লাখ ৫৫ হাজার ৪৫৪ জনের। সুস্থ হয়েছেন ২২ কোটি ৯ লাখ ৪৬ হাজার ৭৫৬ জন। চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১ কোটি ৭৯ লাখ ৪৯ হাজার ৫৯৫ জন। ভাইরাসে মোট সংক্রমিত হয়েছেন ২৪ কোটি ৩৮ লাখ ৫১ হাজার ৮০৫ জন।


একাত্তর/আরএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন