ঢাকা ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

গাড়ি ভাঙচুর করায় আগুন না নিভিয়েই চলে গেল ফায়ার সার্ভিস

নিজস্ব সংবাদদাতা, শ্রীনগর (মুন্সিগঞ্জ)
প্রকাশ: ২৫ অক্টোবর ২০২১ ১৬:২৭:১৭ আপডেট: ২৫ অক্টোবর ২০২১ ১৭:১৩:০৯
গাড়ি ভাঙচুর করায় আগুন না নিভিয়েই চলে গেল ফায়ার সার্ভিস

মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগরে আগুন লাগার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে দেরি হওয়ায় ফায়ার সার্ভিসের একটি গাড়ি ভাঙচুর করেছে স্থানীয় জনতা। রোববার (২৪ অক্টোবর) দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে উপজেলার বাড়ৈগাও এলাকা এ ঘটনা ঘটে। 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রাত তিনটা ১০ মিনিটে বাড়ৈগাও এলাকার একটি চায়ের দোকানে প্রথমে আগুন লাগে। মুহূর্তে আগুন পাশের দোকানগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে। এতে চায়ের দোকানসহ পাশের একটি কম্পিউটার ও একটি কসমেটিকসের দোকান সম্পূর্ণ পুড়ে যায়। এর কিছুক্ষণ পর ঘটনাস্থলে পৌঁছায় মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট। এসময় দেরিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর অভিযোগে উত্তেজিত লোকজন ফায়ার সার্ভিসের গাড়িতে ঢিল ছুড়ে ভাঙচুর করে। এতে বাধ্য হয়ে ঘটনাস্থল থেকে ফিরে যান ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। পরে স্থানীয়দের প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। 

শ্রীনগর ফায়ার সার্ভিসের ইন্সপেক্টর মাহফুজ রিবেন গণমাধ্যমকে বলেন, বাড়ৈগাও এলাকায় একটি চায়ের দোকানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় রাত তিনটা ২২ মিনিটে আমরা খবর পাই। ঘটনাস্থল কাছাকাছি হওয়ায় তিনটা ৩৪ মিনিটে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছি। এ সময় বাজারে জড়ো হওয়া উত্তেজিত জনতার কারণে আগুন নেভানোর কাজ করতে পারিনি আমরা। পরে ওই স্থানে জড়ো হওয়া জনতা ফায়ার সার্ভিসের গাড়িতে ঢিল ছুড়ে ভাঙচুর করে। এতে গাড়ির একপাশের কাচ ভেঙে যায়। পরিস্থিতি বেসামাল দেখে উপস্থিত পুলিশ সদস্যদের পরামর্শে আমরা ফিরে আসি। 

পরে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নিতে চাইলে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা আমাদের ক্ষতিপূরণ দিয়ে দেন। তাই আমরা আর কোনো আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করিনি। বিষয়টি স্থানীয়ভাবে সমাধান হয়ে গেছে বলেও তিনি জানান। 


একাত্তর/এসএ

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন