ঢাকা ২৯ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

সাবেক স্বামীকে এসিড ছোঁড়ার মামলায় মিলার বিচার শুরু

একাত্তর অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশ: ১৪ নভেম্বর ২০২১ ১৬:৫১:৪৫ আপডেট: ১৪ নভেম্বর ২০২১ ১৭:১৭:৩৫
সাবেক স্বামীকে এসিড ছোঁড়ার মামলায় মিলার বিচার শুরু

সাবেক স্বামী পাইলট এস এম পারভেজ সানজারিকে অ্যাসিড ছুঁড়ে মারার অভিযোগে করা মামলায় সংগীতশিল্পী মিলা ও তার সহযোগী কিম জন পিটার হালদারের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। অভিযোগ গঠনের ফলে মামলার আনুষ্ঠানিক বিচার শুরু হয়েছে।

রোববার (১৪ নভেম্বর) ঢাকার অ্যাসিড দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক এ এইচ এম হাবিবুর রহমান ভূইয়া তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।

ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি আনোয়ার উল্লাহ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন: প্রিয় বালিশ নিয়ে বিশ্ব ঘোরেন রিজওয়ান

২০১৯ সালের ৪ জুন মিলার সাবেক স্বামী পারভেজ সানজারির বাবা এস এম নাসির উদ্দিন সংগীতশিল্পী মিলা এবং কিম জন পিটার হালদারের বিরুদ্ধে উত্তরা পশ্চিম থানায় মামলা করেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, সঙ্গীতশিল্পী মিলার সাবেক স্বামী এস এম পারভেজ সানজারির ওপর অ্যাসিড ছুঁড়ে মারার সঙ্গে আসামি কিম জন পিটার জড়িত আছেন বলে যথেষ্ট সাক্ষ্য-প্রমাণ পাওয়া গেছে। ঘটনার আগে ২৬ মে আসামি কিম মিরপুর ডিওএইচএস সরকার মার্কেটের হার্ডওয়্যারের দোকান থেকে অ্যাসিড কেনেন। পরে মামলার অপর আসামি সংগীতশিল্পী মিলার সঙ্গে পরামর্শ করে ২৭ মে অ্যাসিডসহ এস এম পারভেজ সানজারির বাসার সামনে যান কিম। কিন্তু সেদিন বাসার সামনে সানজারিকে না পেয়ে ফিরে আসেন। আসামি মিলার কথা মতো অজ্ঞাত আসামিকে সঙ্গে নিয়ে ২ জুন সন্ধ্যা ৭টা ৫০ মিনিটে সানজারির বাসার সামনে যান কিম। সানজারির মোটরসাইকেলের সামনে আসে কিম।

তখন কিম সানজারিকে বলেন, ‘আমাকে বাঁচান, আমাকে মেরে ফেলবে।’ কিন্তু সানজারি কিম জনকে চিনে ফেলেন। সানজারি বাসার দিকে যাওয়ার চেষ্টা করলে কিম অ্যাসিড ছুঁড়ে পালিয়ে যান। অ্যাসিড সানজারির শরীরের ৮ থেকে ১০ শতাংশ পুড়ে যায় বলে তখন জানান ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের আবাসিক চিকিৎসক।

২০২০ সালের ৩০ ডিসেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মিলা ও তার সহযোগীর বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।


একাত্তর/এআর

মন্তব্য

এই নিবন্ধটি জন্য কোন মন্তব্য নেই.

আপনার মন্তব্য লিখুন